ঢাকা, সোমবার, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজনীতি

‘দুর্নীতি ও দলীয়করণের কারণে দেশে বৈষম্য বেড়েছে’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২১
‘দুর্নীতি ও দলীয়করণের কারণে দেশে বৈষম্য বেড়েছে’

ঢাকা: জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের বলেছেন, ’৯১ সালের পর থেকে দেশে একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এতে দুর্নীতি ও দলীয়করণের কারণে দেশে মারাত্মকভাবে বৈষম্য বেড়েছে।

কিছু মানুষ হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছেন আর কিছু মানুষ সামান্য টাকার জন্য সন্তানের চিকিৎসা করতে পারছে না।  

বৃহস্পতিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ডেফট গ্রুপের পরিচালক মো. মাইদুল ইসলাম টেক্কা জাতীয় পার্টিতে যোগদান উপলক্ষে তিনি এ কথা বলেন।

জি এম কাদের বলেন, শুধু বৈষম্যের প্রতিবাদেই আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধ সংগঠিত হয়েছিল। কিন্তু শুধু দুর্নীতি আর দলীয়করণের কারণে বৈষম্য কমছে না।  

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, অনেকেই জাতীয় পার্টিকে আওয়ামী লীগের বি-টিম মনে করতে পারে। কিন্তু এটা তাদের ভুল ধারণা। জাতীয় পার্টি নিজস্ব রাজনীতি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। আগামী দিনের রাজনীতিতে জাতীয় পার্টি অত্যন্ত সম্ভাবনাময় রাজনৈতিক শক্তি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে।  

তিনি বলেন, যারা দেশ ও দেশের মানুষের সেবা করতে চান তাদের জন্য জাতীয় পার্টির দরজা উন্মুক্ত। জাতীয় পার্টিই এখন নতুন প্রজন্মের সামনে একটি আদর্শ রাজনৈতিক সংগঠন। আওয়ামী লীগে কেউ যেতে পারছে না। নতুনদের জায়গা দেওয়ার মতো স্থান নেই আওয়ামী লীগে। আবার মামলা-হামলার কারণে অনেকেই বিএনপিতে যেতে পারছে না। কিন্তু জাতীয় পার্টি নিরাপদ রাজনৈতিক সংগঠন। যারা ইতিবাচক রাজনীতি করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য জাতীয় পার্টি একটি আদর্শ সংগঠন। জাতীয় পার্টি সবচেয়ে দেশপ্রেমিক রাজনৈতিক শক্তি।

এ সময় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রংপুর বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, দফতর সম্পাদক-২ এম এ রাজ্জাকসহ অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।    

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৪, ২০২১
এসএমএকে/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa