ঢাকা, সোমবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

রাজনীতি

দুঃশাসনকে অপসারণ করতে রাজপথে আসুন: মেজর হাফিজ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০
দুঃশাসনকে অপসারণ করতে রাজপথে আসুন: মেজর হাফিজ

ঢাকা: দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য বিএনপির নেতাকর্মীদের মাঠে নামার আহবান জানিয়ে দলটির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রম বলেছেন, বিএনপির নেতাকর্মীদের কাছে আমার বিনীত আহবান, আওয়ামী দুঃশাসনকে অপসারণ করার জন্যে রাজপথে নেমে আসুন।

মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল ও মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম আয়োজিত ‘বিজয়ের ৪৯ বছর: প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় ভার্চ্যুয়ালি যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

মেজর হাফিজ বলেন, যারা রাজপথে নেমে এই সরকারকে উৎখাত এবং গণতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার করবে, ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনবে, আমরা তাদের সহায়ক শক্তি হিসেবে রাজপথে দৃঢ় পদক্ষেপ রাখব। এ জন্য সাধারণ মানুষের মধ্যে ঐক্য গড়ে তুলতে হবে।

তিনি বলেন, ৪৯ বছর আগে আমরা যে যুদ্ধে নেমেছিলাম তার ফলাফলটা কী? আমাদের স্বাধীনতা কতটুকু অর্জিত হয়েছে, কতটুকু বাস্তবায়িত হয়েছে, এই প্রশ্ন আমাদের সবাইকে আলোড়িত করে।

সম্প্রতি দল থেকে শোকজ করা বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, বলতে দ্বিধা নেই, আজকে আমাদের দেশে গণতন্ত্র এবং সুশাসন নির্বাসনে। মানবিক মর্যাদা ভুলুণ্ঠিত। স্বাধীনতার এই সময়ে এসে আমরা পেয়েছি শুধু দুঃশাসন। আমরা সবাই একটি বৃহৎ কারাগারে বসবাস করছি। সরকার থেকে বলা হয়, আমরা নাকি বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। কিন্তু উন্নয়নের সূচকে আমরা ভুটানেরও নিচে। তথাকথিত উন্নয়নের রোল মডেল এটি একটি ফাঁকা বুলি। আমরা ক্রমশ দরিদ্র হয়ে যাচ্ছি।

মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানসহ অন্যান্য নেতারা।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০
এমএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।