ঢাকা, রবিবার, ১০ মাঘ ১৪২৭, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

রাজনীতি

‘গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে দুঃশাসন টিকিয়ে রাখা যাবে না’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২০
‘গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে দুঃশাসন টিকিয়ে রাখা যাবে না’

ঢাকা: জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে দুঃশাসন টিকিয়ে রাখা যাবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতারা।

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) বাম গণতান্ত্রিক জোটের পক্ষ থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ হুঁশিয়ারি দেন তারা।

 

বিবৃতিদানকারী নেতারা হলেন- বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবির) প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন, সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, বাসদের (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক মবিনুল হায়দার চৌধুরী,  বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের সভাপতি হামিদুল হক প্রমুখ।

বাম গণতান্ত্রিক জোটের পক্ষ থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার কর্তৃক ঢাকা শহরে পুলিশের পূর্বানুমতি ছাড়া সভা-সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানানো হয়।  

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, জনগণের মত প্রকাশের স্বাধীনতা মৌলিক সাংবিধানিক অধিকার। নির্দেশ জারি করে সরকার মানুষের বাক স্বাধীনতা কেড়ে নিতে পারবে না, জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে দুঃশাসন টিকিয়ে রাখা যাবে না।

বাম জোটের পক্ষ থেকে বলা হয়, ৩০ ডিসেম্বর পুলিশ ও আমলাদের সহযোগিতায় দিনের ভোট রাতে সম্পন্ন করে ভোট ডাকাতির মাধ্যমে ক্ষমতাসীন এ সরকার জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করে দুঃশাসন টিকিয়ে রাখতে জনগণের মিছিল, সভা, সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে দীর্ঘ সংগ্রামের মাধ্যমে জনগণ গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরে পেয়েছিল। স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সময় জনগণ সভা, সমাবেশ করতে পুলিশি অনুমোদনের তোয়াক্কা করেনি। আজও ভাত ও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে জনগণ রাজপথের লড়াইয়ে কোনো অনুমতির তোয়াক্কা করবে না।

বাম নেতারা অবিলম্বে সরকারের এ অগণতান্ত্রিক নির্দেশ প্রত্যাহার করার দাবি জানান। একইসঙ্গে তারা বলেন, নতুবা সরকারের এ অবৈধ নির্দেশ প্রত্যাখ্যান করেই জনগণের লড়াই চলবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০২০
আরকেআর/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa