ঢাকা, বুধবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ সফর ১৪৪২

রাজনীতি

সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিদিন ষড়যন্ত্র হচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২০
সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিদিন ষড়যন্ত্র হচ্ছে: শিক্ষা উপমন্ত্রী বক্তব্য দিচ্ছেন উপমন্ত্রী নওফেল, ছবি: বাংলানিউজ

গোপালগঞ্জ: শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিদিন ষড়যন্ত্র হচ্ছে। এ ষড়যন্ত্র আমরা রুখে দেব।

যতদিন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের একজন নেতাকর্মীও বেঁচে থাকবেন, ততদিন কোনোভাবেই ষড়যন্ত্রকারীরা সফল হবে না, যোগ করেন উপমন্ত্রী।
 
বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস পালনের প্রস্তুতিমূলক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।  

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কয়েকজন খুনির ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। আরও কয়েকজন খুনি বিদেশে পালিয়ে আছেন। তারা জাতির জন্য হুমকি এবং ঝুঁকি। তাদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করতে সরকার পদক্ষেপ নিয়েছে।  

কোনো মানুষকে হত্যা করলে তার আত্মীয় স্বজনের বিচার পাওয়ার অধিকার আছে। কিন্তু জাতির পিতাকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হলেও সংবিধান সংশোধন করে জিয়াউর রহমান খুনি ফারুক, ডালিম, রশিদ গংদের দায়মুক্তি দিয়েছিলেন। পৃথিবীর ইতিহাসে কোনো দেশে সংবিধান সংশোধন করে কোনো হত্যার বিচারের পথরোধ করা হয়নি। বাংলাদেশে জিয়াউর রহমান সে কাজটি করেছিলেন, যোগ করেন উপমন্ত্রী।  

কোটালীপাড়া উপজেলা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ভবেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, কোটালীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আয়নাল হোসেন শেখ বক্তব্য দেন।  

বিকেল সাড়ে ৪টায় গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধের বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। পরে সুরা ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করে বঙ্গবন্ধু এবং ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট হত্যার শিকার সবার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন তিনি।

পরে টুঙ্গীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন উপমন্ত্রী।

এসব কর্মসূচিতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চৌধুরী এমদাদুল হক, কোটালীপাড়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান হাওলাদার, পৌর মেয়র মো. কামাল হোসেন শেখ, সাবেক পৌর মেয়র এইচ এম অহিদুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম হুমায়ুন কবির, টুঙ্গীপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান সোলায়মান বিশ্বাস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল বাশার খায়ের, সাধারণ সম্পাদক বাবুল শেখ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ফোরকান বিশ্বাস, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মোস্তফা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক বিশ্বানসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।  
 
বাংলাদেশ সময়: ২১০৪, আগস্ট ১৩, ২০২০
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa