ঢাকা, বুধবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

রাজনীতি

স্বাস্থ্যখাতকে অবহেলা করছে সরকার: রিজভী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৬ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২০
স্বাস্থ্যখাতকে অবহেলা করছে সরকার: রিজভী

ঢাকা: বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি) স্বাস্থ্যখাতের বরাদ্দে সরকারের অবহেলা প্রকাশ পেয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) রাজধানীর দক্ষিণ বাড্ডার ৯৭ নম্বর ওয়ার্ডে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এম এ কাইয়ুমের উদ্যোগে এ ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

রিজভী বলেন, সরকার বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। সেখানে সরকারের অগ্রাধিকার যে খাত তার মধ্যে ৭ নম্বরে রাখা হয়েছে স্বাস্থ্যখাতকে। গত বছর ছিল ১০ হাজার কোটি টাকা, এ বছর রাখা হয়েছে ১৩ হাজার কোটি টাকার একটু বেশি। অর্থাৎ এখনও এ খাতের ব্যাপারে সরকারের কোনো নজর নেই।

এডিপিতে স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্ধ নিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় রিজভী বলেন, সাংবাদিকরা পরিকল্পনামন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন করেছিলেন, এ যে মহামারি হাসপাতালে যন্ত্রপাতি নেই, স্বাস্থ্যসেবা নেই- এখানে স্বাস্থ্যখাত সরকারের অগ্রাধিকার এতো নিচে কেন? পরিকল্পনামন্ত্রী বলেছেন যে, আমরা টাকা বাড়ালে সেটা বাস্তবায়নের সক্ষমতা নেই। তাহলে দেশের স্বাস্থ্যখাত, মেডিক্যাল হাসপাতাল সবকিছু অক্ষমরা চালাচ্ছে। এ সরকারের কারণেই দেশের স্বাস্থ্যখাতের এ অবস্থা। এ রকম পরিস্থিতি চলতে পারে না।

গত ১৯ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) ভার্চ্যুয়াল সভায় আগামী অর্থবছরের এডিপির চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। এ এডিপিতে ২০২০-২১ অর্থবছরে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য ২ লাখ ৫ হাজার ১৪৫ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে, সেখানে স্বাস্থ্যখাতে উন্নয়ন বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ১৩ হাজার ৩৩ কোটি টাকা।

স্বাস্থ্যখাতে সরকারের ব্যর্থতার সমালোচনা করে রিজভী বলেন, আপনারা কোনো কিছুর সমাধান করতে পারেননি। আজকে হাসপাতালে ভেন্টিলেটর নেই, অক্সিজেনের সিলিন্ডার নেই, যে যন্ত্র অক্সিজেন দেবে সে যন্ত্র নেই। যে অক্সিজেন মাস্ক লাগে তার ৪০ শতাংশ হাসপাতালে নেই। এগুলো কী ব্যর্থতা নয়?

তিনি বলেন, এ ব্যর্থতার কারণেই তো করোনায় মানুষ মারা যাচ্ছে। এ ব্যর্থতা তো সরকারের। এ ব্যর্থতার সমালোচনা করলেই তারা (সরকার) খুব মন খারাপ করেন, রাগান্বিত হন। যারা এসব বিষয় নিয়ে ফেসবুকে লেখেন তাদের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার করে। বুধবার (২০ মে) গাজীপুরে পলাশ নামে একটি ছেলে ফেসবুকে লেখার কারণে তাকে গ্রেফতর করা হয়েছে। কে কোন বিষয়ে কী লিখছেন তাদের সরকারের নজরদারিতে রয়েছে। অথচ করোনাকে প্রতিরোধ করার জন্য কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে এ ব্যাপারে তাদের কোনো নজর নেই। দুস্থ ও দরিদ্র মানুষের জন্য সরকারি ত্রাণসামগ্রী এবং দুস্থদের জন্য দেওয়া সরকারি অর্থ ক্ষমতাসীনরা লুটপাট করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এসময় মহানগর উত্তরের সহ-সভাপতি আবুল হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক এজিএম শামসুল হক, ৯৭ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি রাশেদ আলম মনু, সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের বাবু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৩ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২০
এমএইচ/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa