bangla news

সাংবাদিকদের সুরক্ষা নিশ্চিতে জাপা চেয়ারম্যানের আহ্বান

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৫-০৪ ৬:১৮:৫৪ পিএম
জি এম কাদের

জি এম কাদের

ঢাকা: করোনা পরিস্থিতিতে সংবাদমাধ্যম কর্মীদের অর্থনৈতিক সুরক্ষাসহ সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জি এম কাদের। 

সোমবার (৪ মে) সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় এ আহ্বান জানান তিনি।

বার্তায় বলা হয়, করোনা ভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ায় বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক বিরাজ করছে। এমন বাস্তবতায় প্রথম সারির যোদ্ধা হিসেবে চিকিৎসকরা কাজ করছেন। সরকারের পক্ষ থেকে চিকিৎসকদের জন্য বীমা ও প্রণোদনা ঘোষণায় সন্তোষ জানিয়ে তাদের সার্বিকভাবে সুরক্ষিত রাখতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান জাপা চেয়ারম্যান।
 
তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা লকডাউন নিশ্চিতে কাজ করছেন। পাশাপাশি করোনা রোগী হাসপাতালে নেওয়া, দাফন ও জানাজা এবং দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করছেন তারা। ফলে রক্ষার জন্যও সরকার যেন প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করে।

এরপরপরই সংবাদমাধ্যম কর্মীদের বিষয়ে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে জি এম কাদের বলেন, করোনা যুদ্ধে আমাদের সংবাদমাধ্যম কর্মীরাও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মাঠে-ঘাটে কাজ করছেন। তাদের অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরই মাঝে একজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারাও গেছেন। 

‘করোনা যুদ্ধে অন্যযারা মাঠে আছেন, সাংবাদিকরা তাদের মতো সুরক্ষা পাচ্ছেন না। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন, কিন্তু তাদের ক্ষতিপূরণের নিশ্চয়তা নেই। শুধু তাই নয়, এ পরিস্থিতিতেও অনেকের চাকরি নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে, ছাঁটাইয়ের কথা শোনা যাচ্ছে, অনেকের বেতন দেওয়া হচ্ছে না। এ বাস্তবতায় সংবাদ কর্মীদের জন্য সরকারের বিশেষ দৃষ্টি দেওয়া জরুরি। বেসরকারী খাতের সংবাদমাধ্যম কর্মীরা যেন চাকরিচ্যুত না হন, সময় মতো বেতন পান এবং সুরক্ষিতভাবে কাজ করতে পারেন সেজন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।’

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৮ ঘণ্টা, মে ০৪, ২০২০
এসএমএকে/এইচজে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   করোনা ভাইরাস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-05-04 18:18:54