bangla news

স্বাস্থ্যখাতে বেহাল দশা কেন, প্রশ্ন রিজভীর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৪-০৯ ২:৫৩:৩১ পিএম
রুহুল কবির রিজভী, ছবি: বাংলানিউজ

রুহুল কবির রিজভী, ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: জনস্বাস্থ্য নিয়ে এ সরকার কিছুই করেনি দাবি করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকারের মন্ত্রীদের মুখে উন্নয়নের জোয়ারের খবরে এতদিন দেশ ভেসে গেছে। তাহলে এখন স্বাস্থ্য খাতের এত বেহাল দশা কেন। হাসপাতালে নেই কোনো আধুনিক সরঞ্জামাদি। পরীক্ষা করতে নেই সামগ্রী, রোগ ডায়াগনোসিসের ব্যবস্থাও নেই। তেমন কোনো আইসিইউও নেই।

তিনি বলেছেন, ১৭ কোটি মানুষের জন্য ভেন্টিলেটর আছে মাত্র ১৭০০। হাসপাতালে চিকিৎসক নেই, নার্স নেই। স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। বিনা চিকিৎসায় মারা যাচ্ছে মানুষ। লাশ পড়ে থাকছে পথে ঘাটে। হাসপাতালে ঘুরতে ঘুরতে চিকিৎসা না পেয়ে মারা গেছে ঢাবি শিক্ষার্থীসহ অসংখ্য মানুষ।

বৃহস্পতিবার (০৯ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয় থেকে ভিডিও কনফারেন্স করে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, এরই মধ্যে দেশজুড়ে ভয়াবহ খাদ্য সংকট শুরু হয়েছে। মধ্যবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্তসহ দরিদ্র মানুষ সর্বগ্রাসী ক্ষুধার মধ্যে নিপতিত হয়েছে। সরকার ঢাকঢোল পিটিয়ে ত্রাণের কথা বলছে। শত শত বস্তা রিলিফের খাদ্যসামগ্রী পাওয়া যাচ্ছে সরকারি দলের নেতাদের বাসায়। যেকোনো ধরনের জাতীয় দুর্যোগ এলেই আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের হয়ে যায় পোয়াবারো। অবিলম্বে দুস্থ মানুষের মাঝে সরকারি ত্রাণ সহায়তা দেওয়ার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োগ করার জন্য দাবি জানচ্ছি।

তিনি বলেন, দু’দিন আগে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ফেসবুক একাউন্ট নেই মর্মে দলের পক্ষ থেকে বিবৃতি দেওয়া হয়েছিল। আবারও বলছি, তারেক রহমানের কোনো ফেসবুক একাউন্ট নেই। একইসঙ্গে আরও জানাচ্ছি, tariquerahman.bnp.uk@gmail.com এই ই-মেইল এড্রেস থেকে প্রতারণামূলক মেইল পাঠানো হয়েছে। যা সম্পূর্ণরুপে মিথ্যা ও বানোয়াট। এর সঙ্গে তারেক রহমানের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এই নামে তারেক রহমানের কোনো ই-মেইল এড্রেস নেই। কোনো প্রতারক চক্র ভুয়া ই-মেইল একাউন্ট খুলে প্রতারণা করছে। দেশবাসীসহ বিএনপি নেতাকর্মীদের এ বিষয়ে সতর্ক থাকা এবং বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৯, ২০২০
এমএইচ/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজনীতি করোনা ভাইরাস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-04-09 14:53:31