bangla news

বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদের মৃত্যুদণ্ডের রায় কার্যকরের দাবি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৪-০৮ ৩:১৯:৫৭ পিএম
ওবায়দুল কাদের

ওবায়দুল কাদের

ঢাকা: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যা মামলার রায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ক্যাপ্টেন (বরখাস্তকৃত) আব্দুল মাজেদের মৃত্যুদণ্ডের রায় অবিলম্বে কার্যকর করার দাবি জানিয়েছে আওয়ামী লীগ।

বুধবার (৮ এপ্রিল) দুপুরে দলটির সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ দাবি জানান।

ওবায়দুল কাদের সংসদ ভবন এলাকায় তার সরকারি বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধুর খুনিদের মৃত্যুদণ্ডের রায় সম্পূর্ণ বিচারিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। দেশের সংবিধান ও প্রচলিত ফৌজদারী কার্যবিধি অনুযায়ী মৃত্যুদণ্ডের রায় কার্যকরের ক্ষেত্রে আইনি কোনো বাধা নেই এবং নির্দিষ্ট মেয়াদে মৃত্যুদণ্ডের রায় কার্যকর করার কথা আইনে উল্লেখ আছে।

মৃত্যুদণ্ডের রায় কার্যকরের জন্য আইনসঙ্গতভাবে যা করার সেটা শুরু হয়ে গেছে বলে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। আমরা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অবিলম্বে মৃত্যুদণ্ডের রায় কার্যকর করার দাবি জানাচ্ছি।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, মাজেদ ছাড়াও অন্য ৫ দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি রাশেদ চৌধুরী, নূর চৌধুরী, শরিফুল হক ডালিম, কর্নেল রশিদ ও মুসলেহউদ্দিন রিসালাদার পলাতক অবস্থায় আছে। তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য দীর্ঘদিন ধরে সরকারের বিভিন্ন সংস্থার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে এবং সেটা আরও জোরদার করার দাবি জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে এই জাতির অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করা হয়। পৈশাচিক ও নারকীয় এই হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে শুধু ব্যক্তি বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়নি, একটি দল ও তার আদর্শকে নিশ্চিহ্ন করার অপচেষ্টা করা হয়নি বরং একটি সদ্য স্বাধীন জাতি রাষ্ট্রের ভবিষ্যৎ সম্ভাবনাকে গলা টিপে হত্যা করার অপচেষ্টা করা হয়েছিল। আমরা একটি বৈশ্বিক ও জাতীয় সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। এখন আমাদের প্রধানতম কাজ হচ্ছে করোনা ভাইরাসে সৃষ্ট সংকট ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবিলা করা। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে করোনা সংকট মোকাবিলার পাশাপাশি নেতাকর্মীসহ সারাদেশের জনগণকে মতলবী মহলের ষড়যন্ত্রমূলক তৎপরতা সম্পর্কে সর্তক থাকার আহ্বান জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৮, ২০২০
এসকে/এএটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-04-08 15:19:57