bangla news

শ্রমিকদের বঞ্চিত করে উন্নয়নের তামাশা বন্ধের আহ্বান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-০৬ ৯:২০:৪১ পিএম
সমাবেশ। ছবি: বাংলানিউজ

সমাবেশ। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: শ্রমিকদের বঞ্চিত করে উন্নয়নের নিষ্ঠুর তামাশা বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান।

শুক্রবার (০৬ মার্চ) বিকেলে রাজধানীর গুলিস্তানে মহানগর নাট্য মঞ্চে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ আহ্বান জানান।

খালেকুজ্জামান বলেন, যে শ্রমিকের শ্রম ঘামে দেশের প্রবৃদ্ধি তাদের ন্যায্য মজুরি, ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার, গণতান্ত্রিক শ্রম আইনের অধিকার থেকে বঞ্চিত রেখে উন্নয়নের কৃতিত্ব ফলাও করে প্রচার করা শ্রমিকদের সঙ্গে নিষ্ঠুর তামাশা। এই তামাশা বন্ধ করে শ্রমিকদের ন্যায্য দাবি মেনে নিতে হবে।

শ্রমিক আন্দোলনকে সমাজ পরিবর্তনের আন্দোলনে পরিণত করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশের ৫০ বছরের ইতিহাস শোষক শ্রেণির লুটপাট আর শাসকদের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের ইতিহাস। ব্রিটিশ ও পাকিস্তানিদের তাড়িয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল এই প্রতিশ্রুতি দিয়ে যে এখানে শোষণ লুণ্ঠন থাকবে না। শ্রমিক শোষণ যত তীব্র হচ্ছে মালিকদের সম্পদ বৃদ্ধিও তত দ্রুত হচ্ছে। শুধু মজুরি বৃদ্ধির আন্দোলন করে শ্রমিকের অবস্থার পরিবর্তন করা সম্ভব নয়। এই অবস্থা পাল্টাতে হলে ট্রেড ইউনিয়ন আন্দোলনকে সমাজ পরিবর্তনের আন্দোলনে রূপান্তরিত করতে হবে।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি রাজেকুজ্জামান। পরিচালনা করেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব বুলবুল।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন- বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক ও বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশিদ ফিরোজ, নেপালের অল নেপাল ফেডারেশন অফ ট্রেড ইউনিয়নের সহ-সভাপতি সোনা লাল শাহ, ভারতের এ আই সি সি টি ইউ এর অন্যতম জাতীয় সম্পাদক বাসুদেব বসু, জাতীয় শ্রমিক জোট বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক ও স্কপের যুগ্ম-সমন্বয়কারী নইমুল আহসান জুয়েল, ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী আশিকুল আলম, ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশনের সভাপতি ফয়জুল হাকিম লালা প্রমুখ।

এছাড়াও সমাবেশে জার্মানির এম এল পি ডি, শ্রীলংকার ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশন ইন শ্রীলঙ্কা, ভারতের মহারাষ্ট্রের শ্রমিক সংগঠন ও মালয়েশিয়ার শ্রমিক সংগঠনের সংহতি ও শুভেচ্ছা বার্তা পাঠ করে শোনানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, মার্চ ০৬, ২০২০
আরকেআর/এইচএডি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-06 21:20:41