bangla news

ফখরুলকে বাস্তবতা মেনে নিতে বললেন তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-০৫ ৩:১৭:৩৭ পিএম
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: শাকিল আহমেদ

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ্য করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে গদবাধা কথাগুলো বলা বাদ দিয়ে বাস্তবতাকে মেনে নিন। 

বুধবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, শুধু মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নন, ঐক্যফ্রন্টের কিছু নেতাও বিশেষ করে ড. কামাল হোসেনও নির্বাচন নিয়ে নানা কথা বলেছেন। বাংলাদেশে কোনো বিষয় নিয়ে মাওলানারা যেভাবে ফতেয়া দেন, আমি লক্ষ করেছি ঐক্যফ্রন্টের নেতারা সেভাবে ফতেয়া দেওয়া শুরু করেছেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি যে সমাবেশের ডাক দিয়েছে, সমাবেশ অতীতেও তারা করেছে আমরা দেখেছি। দেখেছি তারা সমাবেশ করতে গিয়ে হাঙ্গামা করেছে, মানুষের ওপর আক্রমণ করেছে। সবকিছু বিচার বিশ্লেষণ করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অনুমতি দেবে কী দেবে না সেটা তারা দেখবেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দেখবে তাদের উদ্দেশ্যটা কী, সমাবেশ করা নাকি সমাবেশের নামে বিশৃঙ্খলা করা। 

‘ইভিএম মেশিনে যে ভোট হয়েছে এর মতো স্বচ্ছ ভোট বাংলাদেশের ইতিহাসে আর হয়নি। ইভিএম মেশিন প্রত্যেক দলের জন্য পোলিং এজেন্ট হিসেবে কাজ করে। কারো ফিঙ্গারপ্রিন্ট না মিললে ভোট দেওয়ার সুযোগ নাই। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ২৯ শতাংশ ভোট পড়েছে আর উত্তর সিটি করপোরেশনের ২৫ শতাংশ ভোট পড়েছে। এতে আমাদের প্রার্থীরা বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছে। এজন্য লজ্জা ঢাকতে যে কথা বলতে হয়, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব সেই কথাই বলছে।’

মন্ত্রী বলেন, সরকার খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে পারবে না। কারণ বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতির অভিযোগে সাজাপ্রাপ্ত হয়ে সাজা ভোগ করছেন। তাকে মুক্তি দেওয়ার এখতিয়ার আর সরকারের নাই। সরকারের কাছে যদি তাদের দাবি থাকে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার, তবে সেটা আদালত এবং আইনের কাছে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখানো হচ্ছে। কারণ তাকে মুক্ত করার একমাত্র পথ হচ্ছে আইনি পথ। তাকে যদি আদালত জামিন দেয় তবে তিনি মুক্তি পেতে পারেন। অথবা তিনি বিচারের মাধ্যমে খালাস পান তবে তিনি মুক্তি পেতে পারেন। সুতরাং তাকে মুক্তি দেওয়ার এখতিয়ার সরকারের নেই।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০২০
এমএমআই/এইচএডি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2020-02-05 15:17:37