ঢাকা, বুধবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ সফর ১৪৪২

রাজনীতি

‘সত্যিই হামলা হলে বিষয়টি ইসির গুরুত্বের সঙ্গে দেখা উচিত’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারী ২২, ২০২০
‘সত্যিই হামলা হলে বিষয়টি ইসির গুরুত্বের সঙ্গে দেখা উচিত’

কক্সবাজার: ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কোনো প্রার্থীর উপর সত্যিই যদি হামলা হয়ে থাকে, বিষয়টি সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) গুরুত্বের সঙ্গে দেখা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।  
 

বুধবার (২২ জানুয়ারি) সকালে কক্সবাজারের হোটেল-মোটেল জোনের সুগন্ধা পয়েন্টে লিংক রোড-লাবণী পয়েন্ট সড়ক চারলেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের কাজ পরিদর্শনের সময় মন্ত্রী এ কথা বলেন।  

মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) সকালে মিরপুরে নির্বাচনী প্রচারণার সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে।

ওই ঘটনায় জড়িত হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা নিতে দারুস সালাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তোফায়েল আহমেদকে নির্দেশ দিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেম।

বিএনপির প্রার্থীর উপর হামলার বিষয়ে কাদের বলেন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো যারা ব্যবস্থা নিতে পারে এখন তারা নির্বাচন কমিশনের অধীনে ন্যাস্ত। ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে নির্বাচন কমিশন এখানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি এখন একটা নালিশ নির্ভর দল হয়ে গেছে। আন্দোলন, নির্বাচন কোথাও তাদের সাফল্য নেই। তারা নালিশ নির্ভর রাজনীতি করছে। বিদেশিদের কাছে ধরনা দিচ্ছে এবং নালিশ করছে। নির্বাচন আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে এখন তাদের নালিশ করা ছাড়া তাদের আর রাজনৈতিক পুঁজি নেই।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কোনো প্রার্থীর উপর সত্যিই যদি হামলা হয়ে থাকে, বিষয়টি সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে নির্বাচন কমিশনের গুরুত্বের সঙ্গে দেখা উচিত। কারণ এটি নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার।

রোহিঙ্গাদের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, রোহিঙ্গাদের আমরা মানবিক সাহায্য করেছি, সেই মানবিক সাহায্য এখন আমাদেরকে মানবিক সংকটের দিকে ঠেলে দিয়েছে। ভারত-চীনসহ আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ানমারের ওপর আরো চাপ প্রয়োগের আহ্বান জানান তিনি।

কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চার লেনের কাজ অনেক দূর এগিয়েছে। বিভিন্ন কারণে এখন কক্সবাজারের গুরুত্ব অনেক বেড়ে গেছে, বলেন কাদের।

সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, আশেক উল্লাহ রফিক, কানিজ ফাতেমা আহমেদ, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমেদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা এবং সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানসহ  সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১১৩৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২০/আপডেট: ১১৫৬ ঘণ্টা
এসবি/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa