bangla news

দামি পোশাকগুলো আমার কেনা নয়: কাদের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-০৯ ২:০৮:০৬ পিএম
ওবায়দুল কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

ওবায়দুল কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আমার যত দামি পোশাক, এগুলো আমার কেনা নয়। আমি এগুলো উপহার পাই। হয়তো আমাকে অনেকে ভালোবাসে, আমার অনেক কর্মী আছে যারা বিদেশে থাকে। তারা দেশে আসার সময় একটা স্যুট নিয়ে আসে। এই তো, গতকাল সিঙ্গাপুর থেকে আমার জন্য তিনটা কটি বানিয়ে এনেছে। এখন আপনি যদি নিয়ে এসে আমাকে গিফট করেন, তাহলে আমি কী করবো! 

বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সভাকক্ষে সমসাময়িক ইস্যুতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

সুইডেনভিত্তিক অনলাইন নেটত্রা একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে বলেছিল, ওবায়দুল কাদের বিভিন্ন ব্র্যান্ডের যে দামি সাতটি ঘড়ি ব্যবহার করেন তা অসামঞ্জস্যপূর্ণ এবং আল জাজিরায় গত ২ জানুয়ারি প্রতিবেদনে বলেছে, বাংলাদেশে নেটত্রাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ বিষয়ে মতামত জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিষয়টি আজই প্রথম শুনলাম। কিন্তু আমার যত ঘড়ি আছে, একটাও আমার নিজের পয়সা দিয়ে কেনা নয়। আপনি যদি আমাকে উপহার দেন, তাহলে আমি কী করবো? আপনি বিদেশে গেলেন, ভালোবেসে আমাকে একটি ঘড়ি দিলেন, এটা আমি নিলাম।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘উপহারের সঙ্গে সড়কের কোনো সম্পর্ক নেই। আমার সঙ্গে কোনো কন্ট্রাক্টরের বৈঠকও হয় না। আমি বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবো, তাদের এখানে বসতেও দেই না। যেটা হতো অতীতে, এখন হয় না। 

তিনি বলেন, আমার এখানে কোনো প্রমোশনের জন্য তদবির হয় না। পরবর্তী চিফ ইঞ্জিনিয়ার যিনি হবেন, তার মাত্র ১০ দিন সময় আছে অবসরে যাওয়ার। তাকেও চিফ ইঞ্জিনিয়ার বানিয়েছি কয়েকদিন আগে। সেখানে ১০ দিন পর নতুন লোক আসবে। আগে তো চিফ ইঞ্জিনিয়ার পদে যাওয়া মানে বিশাল ব্যাপার। এসব তো আপনারা শুনতেন, এগুলো অজানা থাকতো না। আর কন্ট্রাক্টররা নির্বাচনের সময় একটা অ্যামাউন্ট দিতে চেয়েছিল। আমি সরাসরি না করে দিয়েছি। আমাকে নির্বাচনের জন্য টাকা প্রধানমন্ত্রী নিজে দিয়েছেন। আমার কারও থেকে টাকা নিতে হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০২০ 
জিসিজি/একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-09 14:08:06