bangla news

এবার শুরু হবে এক দফার আন্দোলন: মিনু

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-১২ ৯:৫১:২৯ পিএম
রাজশাহীতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহীতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: সরকার খালেদা জিয়াকে জেলের মধ্যে মেরে ফেলার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে অভিযোগ করে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু বলেছেন, কোনোভাবেই এই ষড়যন্ত্র সফল হতে দেওয়া হবে না। কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী দিন থেকে এবার এক দফা দাবি নিয়ে আন্দোলন শুরু হবে।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার জামিন শুনানি শেষে রাজশাহীতে বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

রাজশাহীর সাবেক এ মেয়র বলেন, মসজিদের শহর ঢাকাকে জুয়ার শহরে পরিণত করা হয়েছে। হাজার হাজার কোটি টাকা লোপাট করে বিদেশে পাচার করা হয়েছে। এছাড়া দেশেও টাকার পাহাড় গড়ে তুলেছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। অথচ খালেদা জিয়া কোনো দুর্নীতি না করেও জেল খাটছেন। তিনি অসুস্থ হওয়ার পরও এই সরকার ওনাকে জামিন দিচ্ছে না।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন পর্যবেক্ষণসহ খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ। তবে আবেদনকারী (খালেদা জিয়া) যদি সম্মতি দেন তাহলে বোর্ডের সুপারিশ অনুযায়ী তার অ্যাডভান্স ট্রিটমেন্টের (বায়োলজিকস) পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। এই খবরে রাজশাহীর বিএনপির নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হতে থাকেন। উচ্চ আদালতের পর পুলিশি বেষ্টনীর মধ্যেই নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ শুরু করেন।

পরে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা বিএনপি’র আহবায়ক আবু সাঈদ চাঁদ।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- রাজশাহী মহানগর বিএনপি সভাপতি মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন ও কেন্দ্রীয় সদস্য সহিদুন্নাহার কাজি হেনা, জেলা বিএনপি’র সদস্য সৈয়দ মহসিন আলী, রাজপাড়া থানা বিএনপি’র সভাপতি শওকত আলী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিউল হক রানা প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
এসএস/এইচএডি/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-12 21:51:29