ঢাকা, সোমবার, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৩ আগস্ট ২০২০, ১২ জিলহজ ১৪৪১

আওয়ামী লীগ

কুড়িগ্রাম আ’লীগের সম্মেলন বৃহস্পতিবার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-১১ ১১:৩১:২৭ পিএম
কুড়িগ্রাম আ’লীগের সম্মেলন বৃহস্পতিবার

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে শহরজুড়ে শোভা পাচ্ছে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীদের ছবি সম্বলিত ব্যানার-ফেস্টুন। নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা, সম্মেলনের মধ্য দিয়েই বেড়িয়ে আসবে তাদের নেতৃত্ব।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠেয় সম্মেলনকে কেন্দ্র করে কুড়িগ্রাম জেলা স্টেডিয়াম মাঠ সেজেছে পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন দিয়ে। ৩ বছর পর পর সম্মেলন হওয়ার কথা থাকলেও প্রায় ৬ বছর পর অনুষ্ঠিত হচ্ছে কুড়িগ্রাম জেলা সম্মেলন।

কুড়িগ্রাম জেলা সম্মেলনে নয় উপজেলা, তিন পৌরসভা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউন্সিলররা তাদের নেতৃত্ব নির্বাচিত করবেন। সম্মেলনের উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি রমেশ চন্দ্র সেন এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এছাড়াও সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন- আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবীর নানক, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

কুড়িগ্রাম জেলার নয় উপজেলার মধ্যে তিনটি উপজেলার সম্মেলন শেষ করতে পেরেছে জেলা আওয়ামী লীগ। এর মধ্যেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে জেলা সম্মেলন। এই সম্মেলনে আগামী ৩ বছরের জন্য নির্বাচিত হবে নেতৃত্ব। ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে দলের ভেতর নেতৃত্ব নির্বাচন নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা থাকলেও দলীয় সভানেত্রীর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে মনে করছেন স্থানীয় নেতারা।

সভাপতি পদে কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি আমিনুল ইসলাম মঞ্জু মন্ডল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (রাকসু) সাবেক সহসাধারণ সম্পাদক(এজিএস), পাবলিক প্রসিকিউটর ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আব্রহাম লিংকন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চাষী আব্দুল করিম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আক্তারুজ্জামান মন্ডল, কুড়িগ্রাম খবর পত্রিকার সম্পাদক ছানালাল বক্সীর নাম শোনা যাচ্ছে।

অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাফর আলী, কুড়িগ্রাম-১ আসনের সংসদ সদস্য আসলাম হোসেন সওদাগর, জেলা আওয়ামী লীগের ১ নম্বর যুগ্ম সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমান উদ্দিন মঞ্জুর নাম শোনা যাচ্ছে।

কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাঈদ হাসান লোবান বাংলানিউজকে বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে জননেত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত দিবেন, সেই সিদ্ধান্তে সবাই একমত পোষণ করবে এবং জননেত্রীর সোনার বাংলা গড়তে সহায়তা করবে।

কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্রাহাম লিংকন বাংলানিউজকে বলেন, সম্মেলন মানেই নেতৃত্ব তৈরির একটি সুযোগ। কুড়িগ্রামের জেলা সম্মেলন আমাদের এ পশ্চাৎপদ জনপদে নতুন রাজনৈতিক নেতৃত্বের মাধ্যমে সব আকাঙ্ক্ষা পূরণের একটা সুযোগ তৈরি করে দিবে। প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত হচ্ছে পরিচ্ছন্ন ও যোগ্য নেতৃত্ব সৃষ্টি করা।

দলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত যাই হোক, এটির প্রতি অনুগত থেকে কাজ করবেন বলেও জানান তিনি।

সর্বশেষ ২০১৩ সালের ৬ ফেব্রুয়ারির সম্মেলনে কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে আমিনুল ইসলাম মঞ্জু মন্ডল ও সাধারণ সম্পাদক পদে মো. জাফর আলী নির্বাচিত হয়েছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
এফইএস/এসএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa