bangla news

দুর্নীতি করে অর্থনীতিকে ধ্বংস করা হয়েছে: ফখরুল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০৯ ১:১৮:৩৭ পিএম
বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন নেতাকর্মীরা

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন নেতাকর্মীরা

ঢাকা: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আজকে আমরা দেখতে পাচ্ছি, শুদ্ধি অভিযানের নামে শুধু ছোটখাট যারা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত তাদেরকেই গ্রেফতার করা হচ্ছে। যারা রুই-কাতলা, যারা সমাজকে গ্রাস করছে, তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। আজকে বাংলাদেশের অর্থনীতিকে দুর্নীতির মাধ্যমে প্রায় ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে।

সোমবার (০৯ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর শের-ই বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন ফখরুল। এর আগে বিএনপির সাংস্কৃতিক উইং জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) পূর্ণাঙ্গ কমিটির নেতাকর্মীদেরকে নিয়ে শহীদ জিয়ার সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তিনি।

আজ সারাবিশ্বে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি দমন তারিখ ঘোষণা করা হচ্ছে উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমি এই কথাটা বলতে চাই, আজকে সারাবিশ্বে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি দমনের সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশে যে দুর্নীতি সর্বগ্রাসী হচ্ছে- তার বিরুদ্ধে জনগণের রুখে দাঁড়ানো দরকার।

মির্জা ফখরুল বলেন, দুর্নীতি শুধু আর্থিক দুর্নীতি হয় না। সামাজিক ও রাজনৈতিক দুর্নীতি সবচেয়ে বড় দুর্নীতির মধ্যে একটি। আর আমাদের দেশে সব জায়গায় দুর্নীতি শুরু হয়েছে।

আগামী বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন শুনানির বিষয়ে জানতে চাইলে দলটির মহাসচিব বলেন, আমরা আগে দেখি কী হয়। অবস্থা দেখে আমরা পরে সিদ্ধান্ত নেবো।

বিএনপি আন্দোলন-সংগ্রামে ব্যর্থ হয়ে বিদেশের কাছে নালিশ করছে, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, তাদের এই কথাগুলো বলা ছাড়া কোনো উপায় নেই। কারণ তাদের জনগণের কাছে কোনো জায়গা নেই। বাংলাদেশের রাজনীতিতে তাদের আর কোনো ভিত্তি নেই। তারা জোর করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে আছেন। আর এসব কথা না বললে মিডিয়াতেও টিকে থাকতে পারবেন না।

ফখরুল বলেন, আমরা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে শপথ নিয়েছি, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য আমাদের যে সংগ্রাম, সেই সংগ্রাম অব্যাহত রাখবো।

এসময় জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থার সভাপতি অধ্যাপক ড. মামুন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক হেলাল খান, সহ-সভাপতি জাহেদুল আলম হিটোসহ জাসাসের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৯, ২০১৯
এমএইচ/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-09 13:18:37