bangla news

আইনি লড়াই ছাড়া খালেদাকে মুক্ত করা সম্ভব নয়

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০৬ ৮:৩০:২৭ পিএম
আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন জাহাঙ্গীর কবির নানক

আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন জাহাঙ্গীর কবির নানক

ঠাকুরগাঁও: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, যতোই আন্দোলন করেন, যতোই আবোল-তাবোল বলেন, প্রধান বিচারপতির এজলাসে গিয়ে হট্টগোল করেন, আর ঢাকা শহরে গাড়ি ভাঙচুর করেন, আইনি লড়াই ছাড়া খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করা সম্ভব নয়। 

শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) বিকেলে ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে (বিডি হল রুমে) আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিকী সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

নানক বলেন, বিএনপির দুই কান কাটা। যার এক কান কাটা সে চলে রাস্তার একধার দিয়ে। আর যার দুই কান কাটা, সে লজ্জা-শরমের মাথা খেয়ে চলে রাস্তার মাঝখান দিয়ে। বিএনপির নেতা খালেদা জিয়া গ্রেফতার হন দুর্নীতির দায়ে। আইনি সব লড়াই করার পরও প্রমাণ করতে পারেননি তিনি দুর্নীতি করেননি। সেই কারণেই দুর্নীতি মামলায় তার ১৭ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন কমিটি হয়েছে কী-না তা জানিনা। যদি হয়ে থাকে সেই কমিটিতে যদি কোনও অনুপ্রবেশকারী ঢুকে থাকে, তাকে বের করে দিতে হবে। কারণ আন্দোলন সংগ্রাম করবে একজন আর দলের মধ্যে জায়গা করে নেবে আরেকজন, এটা হতে পারে না।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহামুদ চৌধুরী, ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড়-দিনাজপুর সংরক্ষিত আসনের এমপি জাকিয়া তাবাসসুম জুই, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহা. সাদেক কুরাইশী প্রমুখ।

এর আগে সম্মেলনের শুরুতে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে এর উদ্বোধন করেন অতিথিরা। পরে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুহা সাদেক কুরাইশীকে সভাপতি ও দীপক কুমার রায়কে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নাম ঘোষণা করেন প্রধান অতিথি জাহাঙ্গীর কবির নানক।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
এসএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-06 20:30:27