ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ আষাঢ় ১৪২৮, ২২ জুন ২০২১, ১১ জিলকদ ১৪৪২

জাতীয় পার্টি

‘সন্তানের অধিকার আমি ছাড়বো না’

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৩২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৯
‘সন্তানের অধিকার আমি ছাড়বো না’

ঢাকা: জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সন্তান এরিক এরশাদের অধিকার ছাড়বেন না বলে জানিয়েছেন বিদিশা এরশাদ।

শুক্রবার (২২ নভেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

সংবাদ সম্মেলনে বিদিশা এরশাদ বলেন, আমি ঠিকানা বদল করার জন্য এখানে আসিনি।

গতকাল দেখলাম জাতীয় পার্টির অনেকে আমি কেন এরিকের বাসায় এ বিষয়ে ইনকোয়ারি করার দাবি জানিয়েছেন। তাদের দাবি, আমি সশস্ত্র অবস্থায় এখানে এসেছি। কিন্তু আমি এখানে আমার বাচ্চার জন্য এসেছি। আমি আসার পর বাচ্চাটাকে জঘন্য অবস্থায় পেয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আমি আমার সন্তানকে চাই। মা হিসেবে শুধু আমি আমার সন্তানকেই চাই। যতদিন ওর বাবা বেঁচে ছিলেন তখন আমার চিন্তা করতে হয়নি। কিন্তু তিনি মারা যাওয়ার পর অন্যরা আমার সঙ্গে তাকে যোগাযোগ করতে দেয়নি। ওর চাচা স্পেশালি। জিএম কাদের সাহেব মানা করে দিয়েছেন এরকি যেন আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পারে।

আরও পড়ুন>> আমার সম্পত্তিতে চাচার লোভ আছে: এরশাদপুত্র এরিক

বিদিশা এরশাদ এরিকের অধিকার না ছাড়ার কথা উল্লেখ করে বলেন, আমার কথা হচ্ছে, তারা এখন ব্যস্ত প্রেসিডেন্ট পার্কের ঠিকানা নিয়ে। আমার জীবনই তো শেষ। তারা আমার বাচ্চার যত্ন নেয়নি। আমার সন্তানের অধিকার আমি ছাড়বো না।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনে এরিক এরশাদ বলেন, আমার চাচার একটু লোভ আছে আমাদের সম্পত্তির প্রতি। তারা অভিযোগ করেছেন মা এখানে সশস্ত্র অবস্থায় এসেছেন। কিন্তু এটা কোনোভাবেই সম্ভব নয়।

বেশ কয়েকদিন আগে বারিধার প্রেসিডেন্ট পার্কে এরিক এরশাদের বাসায় আসেন বিদিশা এরশাদ। আর সোমবার (১৮ নভেম্বর) এরিক নিজে গুলশান থানায় উপস্থিত হয়ে এ বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বলেন, অনেকে অভিযোগ করেছেন বিদিশা জোর করে বারিধারার বাসায় এসেছেন। কিন্তু এরিক নিজে জিডিতে উল্লেখ করেছেন, তিনি অসুস্থ। এ অবস্থায় বাসায় তার মা বিদিশাকে নিয়ে থাকতে চান।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৯
এইচএডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa