bangla news

দলে বসন্তের কোকিল চাই না: কাদের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১১ ২:৫৩:২৯ পিএম
সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন ওবায়দুল কাদের। ছবি: জিএম মুজিবুর

সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন ওবায়দুল কাদের। ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে। দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, লুটেরা, সন্ত্রাসীরা সাবধান। বসন্তের কোকিলদের নিয়ে দল ভারী করার প্রস্তাব করবেন না। আমরা বসন্তের কোকিল চাই না। 

সোমবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশনে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি আমাদের প্রতিটি সংগঠনের নেতাকর্মীদের বলতে চাই, দলে কোনো দূষিত রক্ত চাই না। দলে বিশুদ্ধ রক্ত সঞ্চালন করতে হবে। ক্লিন ইমেজের কর্মীদের সংগঠনে যুক্ত করতে হবে।  

তিনি বলেন, আপনারা কেউ ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না। ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। বসন্তের কোকিলদের নিয়ে দল ভারী করার প্রস্তাব করবেন না। আমরা বিশ্বাসী, সাহসী এবং ত্যাগী কর্মী চাই; বসন্তের কোকিলদের চাই না। 

সেতুমন্ত্রী বলেন, আমাদের কোনো খারাপ লোকের দরকার নেই। খারাপ কর্মীরা দলের দুর্নাম ডেকে আনে। খারাপ কর্মীদের দলের দুঃসময়ে হাজার পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়ে খুঁজে পাওয়া যায় না। আওয়ামী লীগে দুঃসময়ের কর্মী চাই, বসন্তের কোকিল চাই না। 

তিনি বলেন, দুর্নীতি, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, মাদক, ঘুষখোর, টেন্ডারবাজ, ভূমি দখলদারকে না বলুন। দশটি ভালো কাজ ও অর্জন একটি খারাপ কাজের জন্য ম্লান হয়ে যেতে পারে। এই আহ্বান আমি স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মীদের কাছে দিয়ে গেলাম। 

কাদের বলেন, শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে। শেখ হাসিনার সৎ সাহস আছে বলেই তিনি নিজের ঘর থেকে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন। কেউ ছাড় পাবে না। শুধু আওয়ামী লীগ না, অন্য দলেও যারা বড় বড় কথা বলছে, তাদের সম্পর্কেও খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। কারা কারা দুর্নীতি করে আঙুল ফুলে কলাগাছ হয়েছে, প্রশাসনে কারা কারা দুর্নীতিবাজ, তার খোঁজও নেওয়া হচ্ছে। সবক্ষেত্রে খারাপ লোকদের খুঁজে খুঁজে বের করা হবে। 

প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে তিনি বলেন, আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের তিনজন সৎ রাষ্ট্রনায়কের একজন। আমাদের নেত্রী বিশ্বে প্রথমসারির প্রভাবশালী নেতাদের মধ্যে একজন। বিশ্বের সেরা দুইজন প্রধানমন্ত্রীর একজন। পিতা বঙ্গবন্ধুর মতোই তার জীবনকে বুলেট তাড়া করে ফেরে। আমরা যদি সততা ও সাহসের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পতাকা হাতে এগিয়ে যাই, কোনো শক্তি আওয়ামী লীগের অগ্রযাত্রা রুখতে পারবে না।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি-সম্পাদকের নাম আগামী ১৬ নভেম্বর স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় সম্মেলনে ঘোষণা করা হবে।

এর আগে, অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ। সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি বাবু দেবাশীষ বিশ্বাস, পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান টিটু। 

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি কৃষিবিদ বাহাউদ্দিন নাছিম, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক নির্মল রঞ্জন গুহ, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাজী মেজবাহ হোসেন সাচ্চু।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর প্রমুখ। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ১১, ২০১৯
আরকেআর/এফএম/একে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ওবায়দুল কাদের
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-11 14:53:29