bangla news

দেশের জনগণ জাপাকে ক্ষমতায় দেখতে চায়: জিএম কাদের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১০ ৭:০৩:৩৫ পিএম
দোয়া ও আলোচনা সভায় মোনাজাত করছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরসহ অন্যরা। ছবি: বাংলানিউজ

দোয়া ও আলোচনা সভায় মোনাজাত করছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরসহ অন্যরা। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, আমরা ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাস করি। কিন্তু গোড়ামী পছন্দ করি না। কোরআন, হাদিস এবং রাসুল (সা.) এর দেখানো পথেই আমাদের জন্য শান্তিময় পথ। আমরা সৌভাগ্যবান যে, রাসুল (সা.) এর অনুসারী হতে পেরেছি।

রোববার (১০ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর কাকরাইলে জাপার কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাপা আয়োজিত ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, ১৯৯০ সালের পরে দেশের মানুষ আর প্রত্যাশিত সুশাসন পায়নি। তাই দেশের মানুষ আবারও পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাপার নেতৃত্বে শান্তিময় বাংলাদেশ আশা করছে। জাপাকে দেশের মানুষ আবারও রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায়।

সভায় জাপার মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, ইসলামের খেদমতে জাপা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। শুধু মসজিদ নয়, সবধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুৎ ও পানির বিল মওকুফ করেছিলেন এরশাদ। গরীবের হজ বলে পরিচিত জুমার নামাজ আদায়ের জন্য শুক্রবারকে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছেন তিনি। সৌন্দর্যবর্ধন ও সম্প্রসারণ করে বায়তুল মোকাররমকে জাতীয় মসজিদ ঘোষণা দেন পল্লীবন্ধু।

তিনি আরও বলেন, ইসলামী মূল্যবোধ সমুন্নত রেখে জাপা এগিয়ে যাবে। গণমানুষের আস্থা ও ভালোবাসায় জাপা আবারও রাষ্ট্র ক্ষমতা ফিরে পাবে।

দোয়া ও আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলে- জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমদে বাবলু, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সুনীল শুভ রায়, এস এম ফয়সল চিশতী, মীর আবদুস সবুর আসুদ, মেজর (অব.) রানা মোহাম্মদ সোহেল, মো. এমরান হোসেন মিয়া, নাজমা আক্তার, উপদেষ্টা ক্বারী হাবিবুল্লাহ বেলালী, রওশন আরা মান্নান, ড. নূরুল আজহার, ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নুরু, সরদার শাহজাহান, জহিরুল আলম রুবেল, মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, যুগ্ম-মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, আমির উদ্দিন আহমেদ ডালু, শফিউল্লাহ শফি প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ১০, ২০১৯
এমএইচ/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   জাতীয় পার্টি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-10 19:03:35