bangla news

কমিশন গঠন করে জেলহত্যায় জড়িত চক্রকে উদঘাটন করুন

রাবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-০৬ ৫:১৩:১৬ এএম
বক্তব্য রাখছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম। ছবি: বাংলানিউজ

বক্তব্য রাখছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম। ছবি: বাংলানিউজ

রাবি: আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত সরকারের সময় জাতীয় চার নেতা হত্যাকাণ্ডের বিচারের রায়ে বলা হয়েছে, একজন চারজনকে হত্যা করেছে। কিন্তু একজনের পক্ষে চারজনকে হত্যা করা সম্ভব নয়। এর সঙ্গে একটি বিশাল চক্র রয়েছে। আইনমন্ত্রীকে অনুরোধ করবো, কমিশন গঠন করে এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত চক্রকে উদঘাটন করুন।

মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) বিকেলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সিনেট ভবনে জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

জাতীয় চার নেতা জীবন দিয়ে দেশকে কলঙ্কমুক্ত করেছে উল্লেখ করে জাতীয় নেতা শহীদ ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলীর সন্তান নাসিম বলেন, তারা জীবন দিয়েছেন তবুও বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে বেঈমানি করেননি। জীবন দিয়ে তারা আমাদের কলঙ্কমুক্ত করেছেন। অন্যথায় বিশ্বের মানুষ বলতো বাঙালি এমন জাতি, যাদের একজনও ছিলেন না বঙ্গবন্ধুর জন্য জীবন দেওয়ার মতো।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এ এইচ এম কামারুজ্জামানের সন্তান ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকুক না থাকুক, আমরা জয় বাংলার সঙ্গে থাকবো। আমি জাতীয় চার নেতার একজনের সন্তান, আমারও অধিকার নেই বেঈমানি করে জাতীয় চার নেতাকে কষ্ট দেওয়ার।

অনুষ্ঠানে প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের আহ্বায়ক অধ্যাপক এম মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা ও অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া। 

অনুষ্ঠানে প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের সদস্য অধ্যাপক আব্দুল গণির সঞ্চালনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের দুই শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৫১০ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৬, ২০১৯
ইএআর/আরবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজশাহী
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-06 05:13:16