bangla news

সময়টা খুব খারাপ: কাদের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২০ ২:১৮:২৩ পিএম
সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ক্যাসিনোকাণ্ডে গ্রেফতাররা দলীয় নেতাদের সঙ্গে তাদের সখ্যতা নিয়ে যে তথ্য দিচ্ছেন তা শত্রুতাবশত হতে পারে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিষয়টি নিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করবেন।
  

রোববার (২০ অক্টোবর) সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।
 
চলমান দুনীতি ও ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে গ্রেফতারদের অনেকেই সরকার দলীয় নেতাদের সঙ্গে তাদের সখ্যতার বিষয়টি সামনে আনছেন। ঢাকা উত্তর সিটির কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজীব গ্র্রেফতারের পর দলের সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানকের ছেলে বলে পরিচয় দিতেন।
 
গ্রেফতারদের সঙ্গে নেতাদের সখ্যতার নাম চলে আসছে, এ বিষয়ে দলের পক্ষ থেকে তদন্ত করবেন কিনা- প্রশ্নে কাদের বলেন, অনেক রকমের নিউজ অনেক সময় হয়। কিছু কিছু নিউজ… একজনের সঙ্গে আরেকজনের শত্রুতা আছে। সময়টা খুব খারাপ তো, এ সময়ে এটা আসলে ভেবে দেখতে হবে। নেত্রীর সঙ্গে আলাপ করে জানাবো।
 
শনিবার (১৯ অক্টোবর) অভিযান চালিয়ে রাজীবকে গ্রেফতার করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।
 
আটক হওয়া রাজীব দলের সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক নানকের সন্তান হিসেবে পরিচয় দেন- এ বিষয়ে কাদের বলেন, নানক সাহেবের একটা মেয়ে আছে, ছেলেটা এক্সিডেন্টে মারা গেছে। আর কোনো সন্তান আছে বলে আমার জানা নেই। এই ধরনের কোনো পাতানো সন্তান কিনা- এটা নানক সাহেবকে জিজ্ঞাস করেন।
 
নানকের কারণে প্রভাব বিস্তার করে এতো টাকার মালিক হয়েছেন? এ বিষয়ে কাদের বলেন, আমার মনে হয় হাওয়া থেকে পাওয়া কিছু না বলে আপনি নানক সাহেবকে জিজ্ঞাস করুন, এ ধরনের একটা খবর বেরিয়েছে, এর সত্যতা কতটুকু?
 
যুবলীগ নেতৃত্বে কারা?
গণভবনে প্রধানমন্ত্রী যুবলীগকে ডেকেছেন, চেয়ারম্যানকে ডাকা হয়নি- এ বিষয়ে কাদের বলেন, এটা যুবলীগের জেনারেল সেক্রেটারিকে জিজ্ঞেস করুন। আমি তো আওয়ামী লীগের অফিসে কাউকে ডাকিনি। গণভবনে যাকে ডাকা হবে এটা প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছার বাইরে কাউকে ডাকা হবে না। যুবলীগ জেনারেল সেক্রেটারি জানেন- কাকে ডাকা হয়েছে, তারা নিশ্চয়ই একটা তালিকা দিয়েছেন সেখানে। আমি দলের জেনারেল সেক্রেটারি, বিষয়টা জানি না।
 
যুবলীগের নেতৃত্বে কারা আসবেন, বয়স কত হবে-এমন প্রশ্নে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমার তো কোনো প্রেডিকশন এই মুহূর্তে নেই। এটা যুবলীগ ঠিক করবে। যুবলীগের বয়স, তারা আমাদের সভাপতি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বসবেন।
 
‘সেখানে যদি কোনো নির্দেশনা থাকে, সেটা এই মুহূর্তে আমি বলতে পারছি না। বসবে বিকাল বেলা, আমি এখন কী করে বলবো? দেখা যাক কী হয়? আর কোনো পরিবর্তন বা কিছু করতে হলে যুবলীগের গঠনতন্ত্রেই করতে হবে। আমার মনে হয় বয়সসীমা গঠনতন্ত্রে বেশি নেই, গঠনতন্ত্রে বেশি থাকে না। তো বাস্তবে কী হচ্ছে। যুবলীগ তো ছাত্র সংগঠন না, হতে পারে অস্বাভাবিক বেশি, হলে সমস্যা…।’
 
যুবলীগের বর্তমান চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর বয়স ৭২ বছর, এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, না, হয়েছে তো অনেক আরো আগে, সাত বছর আগে, সম্মেলন দীর্ঘদিন না হওয়াতে। তারা সম্মেলন করছে, তারা গঠনতন্ত্রে কোনো পরিবর্তন আনবে কিনা এটা তাদের বিষয়।
 
এই সময়ে যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ নেতৃত্বে একটা সমালোচনা- এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি কোনো নেতৃত্বে পরিবর্তন-পরিবর্ধন নিয়ে কোনো কথা বলবো না। এটুকু বলতে চাই, নেতৃত্ব যদি বিতর্কিত হয়, বিতর্কিত নেতৃত্ব অবশ্যই নতুন কমিটিতে থাকবে না।
 
খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রশ্নে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপিকে আন্দোলন করতে বলুন। তারা পরিষ্কার বলে দিয়েছে, আন্দোলন ছাড়া খালেদা জিয়ার মুক্তির কোনো বিকল্প নেই। কাজেই এক মুখে এতো কথা কেন? তাদের বলুন, আন্দোলন করতে।
 
‘ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সবাই এক বাক্যে বলছেন যে, খালেদা জিয়ার মুক্তি আইনি পথে হবে না, অন্য কোনোভাবে হবে না, সরকার তাকে মুক্তি দেবে না। কাজেই আন্দোলনের ঝড় তুলতে হবে এবং বিস্ফোরণ ঘটাতে হবে, তারপরে তুমুল আন্দোলনের মাধ্যমে তাকে বের করতে হবে। আন্দোলনে তো কোনো বাধা নেই। জনগণ সায় দিলে আন্দোলন করবে,’ বলেন তিনি।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪০৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২০, ২০১৯/আপডেট:১৪৫০ ঘণ্টা
এমআইএই/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজনীতি আওয়ামী লীগ ওবায়দুল কাদের
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-20 14:18:23