bangla news

দুর্নীতির ঘুণপোকা উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করছে: মেনন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৮ ৭:২৪:৩৮ পিএম
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন রাশেদ খান মেনন। ছবি: বাংলানিউজ

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন রাশেদ খান মেনন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি এবং সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন বলেছেন, বিগত ১০ বছরে আমরা দেশের অনেক উন্নয়ন করেছি। সেই উন্নয়ন ঘুণপোকায় খাচ্ছে। দুর্নীতির ঘুণপোকা উন্নয়নকে চরমভাবে বাধাগ্রস্ত করছে।

শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) বিকেল ৫টায় রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউটের মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি মিলনায়তনে ওয়ার্কার্স পার্টির ঢাকা মহানগর সম্মেলনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

রাশেদ খান মেনন বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে এটা সত্য। উন্নয়নের ফলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বে সমাদৃত হচ্ছেন। তিনি বিশ্বে সমাদৃত হলে বাংলাদেশের সম্মান বাড়ে। কিন্তু শেখ হাসিনার উন্নয়ন দুর্নীতির কারণে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। কারণ দুর্নীতিবাজদের কোনো মানবিক মূল্যবোধ নেই।

ঢাকার সিটি করপোরেশনের দুর্নীতির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ডেঙ্গুর প্রকোপ এখনো রয়েছে। আমরা সবাই জানি, ঢাকা মহানগরের ওষুধ কেনার সময় ২০ শতাংশ টাকা কাট মানির কারণে নিম্নমানের মশার ওষুধ কেনা হয়েছে। ডেঙ্গুতে যখন মানুষ মারা যাচ্ছে, তখন আমাদের মেয়র মশকরা করে বলছেন, ডেঙ্গু মিডিয়ার সৃষ্টি, ডেঙ্গুর কথা বলে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে।

সমাজে বৈষম্যের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, একদিকে উন্নয়ন হচ্ছে, সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সমাজে বৈষম্যও বাড়ছে। প্রতি চারজন মানুষের মধ্যে একজন অতি দরিদ্র্য। গরিব মানুষের হক মেরে কোটিপতি হওয়া লোকের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। একদিকে দুর্নীতি, আরেকদিকে বৈষম্য; এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে দুর্বৃত্তায়ন। ফলে দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে জনজীবন।

১৪ দল গঠন প্রসঙ্গে মেনন বলেন, সম্মিলিতভাবে দুর্নীতি, দুর্বৃত্তায়ন ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করে বিএনপি-জামাতের দুর্নীতি এবং অপশাসন বন্ধের লক্ষ্যে ১৪ দল গঠিত হয়েছিল। কিন্তু আমরা পারি নাই। আমাদের দুর্ভাগ্য; আজ দুর্বৃত্তরা রাজনীতির দখল নিয়ে আধিপত্য কায়েম করেছে। আজকের দুর্নীতি, দুর্বৃত্তায়ন এবং সাম্প্রদায়িকতার রাজনীতি দেশকে ১০ বছর আগের জায়গায় নিয়ে গেছে।

বিএনপি জামাতের শাসনামল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপি দেশে হাওয়া ভবন করেছে, বিএনপি এদেশে একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলা ঘটিয়েছে, বিএনপি ক্লিনহার্টের নামে এক হাজার মানুষকে হত্যা করেছে, ১০ হাজার লোককে পঙ্গু করে দিয়েছে। তাদের দুঃশাসন চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছিল। 

‘তাদের সময়ে জঙ্গিবাদের উত্থানের ফলে পরবর্তীতে হলি আর্টিসানের মতো ঘটনা ঘটে। বিএনপি খারাপ বলে আমরাও খারাপ হব, এমন রাজনীতির কথা তো আমরা কখনো বলিনি। ওয়ার্কার্স পার্টি এমন রাজনীতি করেনা।’ 

ওয়ার্কার্স পার্টির দশম কংগ্রেস প্রসঙ্গ উল্লেখ করে এ নেতা বলেন, দশম কংগ্রেসে আমরা সিদ্ধান্ত নেবো। পার্টি নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে তার সংগঠন প্রতিষ্ঠা করবে। আমরা এখন থেকে হাতুড়ি মার্কায় নিজেদের প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করব। আগামী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যেন একজন সৎ, দক্ষ মেয়র নির্বাচন করা যায়, আমরা সেদিকে এখন থেকেই নজর দেবো।

বর্তমান ছাত্ররাজনীতি প্রসঙ্গে মেনন বলেন, ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করে কোনো সমস্যার সমাধান হবে না। ছাত্ররাজনীতি বন্ধ হলে সেই জায়গা দুর্বৃত্তরা দখল করবে। এদেশের ইতিহাসে ছাত্ররাজনীতির গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা রয়েছে। তাই ছাত্ররাজনীতি বন্ধের পরিবর্তে শিক্ষাঙ্গনগুলো থেকে ছাত্র রাজনীতির নামে অপরাজনীতি বন্ধ করা প্রয়োজন।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য কামরুল আহসান, সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর কমিটির সভাপতি আবুল হোসেন, সঞ্চালনা করেন ঢাকা মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক কিশোর রায়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
আরকেআর/এসএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-18 19:24:38