bangla news

ফাহাদের বাবা-মাকে অবরুদ্ধ করে রেখেছিল আ’লীগ: আমান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৭ ২:২১:১০ পিএম
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখছেন আমানউল্লাহ আমান, ছবি: ডিএইচ বাদল

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখছেন আমানউল্লাহ আমান, ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: দেশে গণতন্ত্র অবরুদ্ধ, বাকস্বাধীনতা নেই। একের পর এক মেধাবীদের খুঁজে খুঁজে হত্যা করা হচ্ছে। হত্যার প্রতিবাদও করা যাবে না। বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদ যেনো কেউ না করতে পারে সে জন্য তার বাবা-মাকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছিলো।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সাবেক ডাকসু নেতাদের ব্যানারে ‘বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে’ আয়োজিত মানববন্ধনে এসব কথা বলেন ডাকসুর সাবেক ভিপি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান।

বিএনপি নেতা আমানউল্লাহ আমান বলেন, সরকার জনগণের নিরাপত্তা দিতে পারছে না। ছাত্রের অধিকার দিতে পারছে না। এর কারণ এ সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। জনগণের ভোটে নির্বাচিত হলে অবশ্যই তারা জনগণের প্রতি খেয়াল রাখতো। বিনা ভোটের সরকার, তাই জনগণের চিন্তা না করে পকেটভারি করছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, আমরা ফাহাদের বাড়িতে তার বাবা-মার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলাম। কুষ্টিয়া লালন শাহ সেতু পার হতে না হতেই শতশত পুলিশ-ডিবি এসে বললো সেখানে যাওয়া যাবে না। নিরাপত্তাজনিত সমস্যার কারণে যেতে দেওয়া হবে না, যেতে দেওয়া হলো না। এর পরদিন দেখলাম হানিফ সাহেব প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফাহাদের বাবা-মাকে নিয়ে গেলেন। বুঝতে আর বাকি নেই আওয়ামী লীগ ফাহাদের বাবা-মাকে অবরুদ্ধ করে রেখেছিলো। তাদের উদ্দেশ্যে ছিলো কেউ যাতে তাদের সঙ্গে দেখা করতে না পারে, এ জঘন্যতম হত্যার প্রতিবাদ করতে যেনো না পারে।

ডাকসুর সাবেক ভিপি আ স ম আব্দুর রবের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন ডাকসুর সাবেক ভিপি ও নাগরিব ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, ডাকসুর সাবেক জিএস বিএনপি নেতা খায়রুল কবির খোকন, এজিএস নাজিম উদ্দিন আলমসহ ডাকসুর সাবেক নেতাকর্মীরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০১৯
ইএআর/ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-17 14:21:10