bangla news

ফাহাদ হত্যাকারীদের মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত: কাদের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৫ ৬:৫৪:৪৩ পিএম
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন ওবায়দুল কাদের

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন ওবায়দুল কাদের

ঢাকা: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকারীদের মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।
 
ওবায়দুল কাদের বলেন, আজ ফাহাদের এ ঘটনায় যারা জড়িত, আজ আর কাল, আমার মতে তো মৃত্যুদণ্ডই হওয়া উচিত। আদালত কী করবে জানি না। মৃত্যুদণ্ড হওয়া মানে কয়েকটা ব্রিলিয়ান্ট ছেলে, মেধাবী কয়েকটা সন্তান চলে গেলো হারিয়ে গেলো, দেশ তো ক্ষতিগ্রস্ত হলো। শুধু ফাহাদের জন্য নয়, যারা এ অপকর্মটি করেছে তাদের জন্য, তারাও তো মেধাবী ছাত্র।
 
যারা এদের সন্ত্রাসী বানিয়েছে বা মদদ দিয়েছে তাদের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে- প্রশ্নে কাদের বলেন, ছাত্রলীগ তো এ ঘটনার সঙ্গে সেভাবে জড়িত না। এ ধরনের হত্যাকাণ্ড কত ক্ষতিকর, সরকার নিশ্চয়ই বিব্রত হয়েছে। রুলিং পার্টির ছাত্র সংগঠনের ব্যানারে হয়েছে। এটার সঙ্গে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগকে এ ধরনের সিদ্ধান্তে (রাজনীতি বন্ধ) জড়িত করা ঠিক নয়। এ ধরনের ব্যাপার বিচ্ছিন্নভাবে যারা ঘটিয়েছে কেস টু কেস বিচারও হওয়া উচিত। গুটিকয়েকের জন্য গোটা পার্টিকে তো আমি দায়ী করতে পারি না। সরকার ক্ষমতায় আছে আমাদের দায় আছে, এ ধরনের ঘটনায় সরকার ও দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়। আমরা বিবেকের রায় থেকে দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছি।
 
ওবায়দুল কাদের বলেন, ফাহাদ হত্যাকাণ্ড, নির্মম, নৃশংস হত্যাকাণ্ড। আমরা নিন্দা করেছি, শুধু নিন্দা করিনি এত দ্রুত সিদ্ধান্ত, অ্যাকশন; বাংলাদেশে ইতোপূর্বে আর হয়নি।
 
‘সেদিনই প্রধানমন্ত্রী আইজিকে ডেকে নিয়ে সঙ্গে সঙ্গে তাদের গ্রেফতার করতে বলেছেন। তারা বেশির ভাগই, মূল যারা ঘটনার সঙ্গে জড়িত তারা গ্রেফতার হয়েছে এবং গতকাল প্রধানমন্ত্রী আবরারের মা, বাবা, পরিবার, তার ভাইয়ের সঙ্গে দেখা করেছেন। তাদের বলেছেন আমি যত দ্রুত সম্ভব এই বিচারকাজ সম্পাদন করবো। আমি ব্যবস্থা নিতে পুলিশকে বলেছি, আইনমন্ত্রীকেও বলেছেন যত দ্রুত সম্ভব এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডে অপরাধীদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে হবে।’
 
ফাহাদ হত্যাকাণ্ড নিয়ে বিএনপির উদ্বেগ নেই
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির উদ্দেশ্য ফাহাদ হত্যাকাণ্ড নয়, আববার হত্যাকাণ্ড নিয়ে তাদের কোনো উদ্বেগ নেই, এটি নিয়ে তারা আন্দোলন করতে চায়। আবরার হত্যাকাণ্ডের বিচার হোক এটা তাদের মূল উদ্দেশ্য নয়। তা না হলে তারা এখন কেন উসকানি দেবে? হত্যাকারীদের সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে।
 
ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করা বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ রাজনীতিকে হত্যা করা। তবে বুয়েট যদি মনে করে বন্ধ করবে তাহলে আপত্তি নেই। দাবি তো সব মেনে নেওয়া হয়েছে- তাহলে এখন কেন আন্দোলন? এটা তো একটা প্রশ্ন জাগতে পারে।
 
চক্রান্তের অংশ হিসেবে বুয়েটের আন্দোলন হচ্ছে কিনা- জানতে চাইলে কাদের বলেন, না সেভাবে আমি বলবো না, সাধারণ শিক্ষার্থীদের অনেক আবেগ আছে সেন্টিমেন্ট আছে। আমি তাদের অনুরোধ করবো তাদের পড়াশোনায় ফিরে যাওয়া উচিত।
 
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য নিয়ে যতটা না উদ্বিগ্ন তার চেয়ে তারা খালেদার শারীরিক অবস্থা নিয়ে রাজনীতি বা আন্দোলনের কোনো ইস্যু খুঁজে পাওয়া যায় কিনা- সেটা নিয়ে উদ্বিগ্ন।
 
সিঙ্গাপুরে স্বাস্থ্যপরীক্ষার সময় মির্জা ফকরুলের সঙ্গে তার দেখা হয়নি দাবি করে বলেন, দেখা হলে ভালো হতো। দেখা হয়নি। আমি যেদিন পৌঁছেছি তার আগের দিন তিনি চলে আসেন।
 
ফিরে যাও, পড়াশোনায় মনোনিবেশ করো
ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা আন্দোলকারী শিক্ষার্থীরা আছেন, বিভিন্ন সংগঠন আছে, সবার কাছে অনুরোধ করবো, যেহেতু সরকার অভিযুক্তদের ব্যাপারে তড়িৎ ব্যবস্থা নিয়েছে, তাদের দাবি মেনে নেওয়া হয়েছে এ কারণে অহেতুক আন্দোলন না করে পড়াশোনায় মননিবেশ করা দরকার। তাদের ক্যাম্পাসে নিজেদের লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করা প্রয়োজন।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮৫২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৫, ২০১৯
এমআইএইচ/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-15 18:54:43