bangla news

দুর্নীতির অভিযোগ পেলে সিটি নির্বাচনে মনোনয়ন নয়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৫ ৬:০৭:৫৮ পিএম
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন ওবায়দুল কাদের

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন ওবায়দুল কাদের

ঢাকা: যেসব নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া যাবে তারা পরবর্তী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়ন পাবে না বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

তিনি বলেন, সব দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আমরা নেতাকর্মীদের নিয়ে দু’বার বসেছি। সেখানে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন কোনো বিতর্কিত ব্যক্তি যাতে দলের নেতৃত্ব ও কোনো পদে অধিষ্ঠিত হতে না পারে।
 
মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় কাউন্সিল থেকেই আমাদের টার্গেট তৃণমূল পর্যায় থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় পর্যায় পর্যন্ত বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে নতুন কমিটি করা। এখন সারা বাংলাদেশে তৃণমূলের সম্মেলন হচ্ছে ও প্রস্তুতি চলছে। সব দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আমরা নেতাকর্মীদের নিয়ে দু’বার বসেছি। সেখানে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে সতর্ক থাকতে হবে। কোনো বিতর্কিত ব্যক্তি যাতে দলের নেতৃত্বে না আসতে পারে। 

দুই সিটির অনেক কাউন্সিলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে- এ বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অপরাধ অনুযায়ী এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। একজনকে অলরেডি গ্রেফতার করা হয়েছে। আরও একজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ এসেছে। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আসবে তারা পরবর্তী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়ন পাবে না। এটা আমি নিশ্চিত হয়ে বলতে পারি। এ ধরনের অপকর্মের অভিযোগ যাদের আছে তাদের মনোনয়ন দেওয়া হবে না। যেখানে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া দরকার তা দুদককে বলা আছে। দুর্নীতি দমন কমিশন ব্যবস্থা নিতে পারে যে কারও ব্যাপারে। 

যাদের ছাতার নিচে এসব দুর্নীতি হচ্ছে তাদের কী করা হবে- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ ধরনের ছাতা খোঁজা হচ্ছে। ব্যবস্থা নেওয়া দৃশ্যমান হচ্ছে। যারা গ্রেফতার হয়েছে তারা কি কম গুরুত্বপূর্ণ ছিল। তারা বড় বড় পদে ছিল। অনেকের বিরুদ্ধে চার্জশিটও হয়েছে। দুদকের চার্জশিটতো আমাদের জেলা পর্যায়ের নেতা বা জাতীয় সংসদের এমপিদের বিরুদ্ধেও হয়েছে। এবং আরও কয়েকটা তদন্ত চলছে। যার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া যাবে তার বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেবে দুদক। অপরাধ করলে আইনের আওতায় এনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সরকারের শুদ্ধি অভিযান কি চলমান রয়েছে এসন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা কোন দিনও থামবে না। যতখন পর্যন্ত এটা নিয়ন্ত্রণে আনতে পারবো। যতোদিন পর্যন্ত মাদক, সন্ত্রাস, জুয়া, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, ক্যাসিনিও এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী যে অভিযান শুরু করেছেন তা চলমান থাকবে। 

ছাত্রদের যারা সন্ত্রাসী বানায় তাদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে- এমন প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, ছাত্রলীগ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত। বিরোধীদলসুলভ একটি বক্তব্য রয়েছে। সেখানে তারা বলেছেন সরকার এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। তারা আর একটা কথা বলছে, ভারত সফরের ব্যর্থতা চাপা দিতে। এগুলো বিরোধীদলসুলভ অপপ্রচার তারা করবেই। 

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৫, ২০১৯ 
জিসিজি/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-15 18:07:58