bangla news

ভারতের যা দরকার সরকার সব দিয়েছে: অলি আহমদ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৪ ৮:৪৯:৪২ পিএম
বক্তব্য রাখছেন এলডিপির প্রেসিডেন্ট ও জাতীয় মুক্তিমঞ্চের আহ্বায়ক কর্নেল (অব.) অলি আহমদ। ছবি: বাংলানিউজ

বক্তব্য রাখছেন এলডিপির প্রেসিডেন্ট ও জাতীয় মুক্তিমঞ্চের আহ্বায়ক কর্নেল (অব.) অলি আহমদ। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: এলডিপির প্রেসিডেন্ট ও জাতীয় মুক্তিমঞ্চের আহ্বায়ক কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বলেছেন, দেশের স্বার্থ রক্ষায় সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। ভারতের যা কিছু দরকার এ সরকার সবকিছু দিয়েছে। বর্তমান সরকার বার বার ভারতের কাছে কূটনৈতিকভাবে পরাজিত হয়েছে।

সোমবার (১৪ অক্টোবর) নিজ কার্যালয়ে বিএনপি জোটের শরিক লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) নেতাকর্মীদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

অলি আহমদ বলেন, ভারতের সঙ্গে অনেকগুলো অমীমাংসিত ইস্যু আছে, বিশেষ করে নদীর পানি। এ সরকার ২০০৮ সালের পর থেকে ক্ষমতায় আছে। কিন্তু কোনো নদীর পানি আনতে পারেনি। অন্যদিকে ভারতের যা দরকার সবকিছু দিয়ে দিয়েছে।

তিনি বলেন, ছাত্রদের হাতে সরকার অস্ত্র তুলে দিয়েছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে শায়েস্তা করার জন্য। এদের হাতে অবৈধ টাকাও তুলে দেওয়া হয়েছে। চাঁদাবাজি ও গুণ্ডামি করার পরিবেশ সৃষ্টি করে দিয়েছে। অবুঝ ছেলে-মেয়েরা রাজনৈতিক দলগুলোর হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এক শ্রেণীর শিক্ষকও তাদের সঠিকপথে রাখার পরিবর্তে বিপথগামী করার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অশান্ত। ছাত্র, অভিভাবক অস্থিরতার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে মারামারি, হত্যাকাণ্ড, দুর্নীতি, চাঁদাবাজি নিত্যদিনের ঘটনায় পরিণত হয়েছে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে অলি আহমদ বলেন, দেশের জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জনপ্রতিনিধিরা নির্বাচিত হয়নি। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ও নির্বাচনকালীন জনগণ বিভিন্নভাবে নির্যাতিত ও অত্যাচারিত হয়েছে। কারণ দেশ স্বাধীন হয়েছে জনগণ স্বাধীন হয়নি। তাই আমাদের সবাইকে জনগণের সেবক হিসেবে কাজ করতে হবে। আইনের শাসন, সুশাসন, ন্যায় বিচার, মানবাধিকার, দুর্নীতিমুক্ত, মাদকমুক্ত, দলীয়করণমুক্ত বাংলাদেশ গঠন করতে হবে। আমরা একে অপরকে দোষারোপ করে কখনও দেশকে তার অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো না। সবাইকে সত্য উপলব্ধি করতে হবে, ন্যায়ের পক্ষে থাকতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৯
এমএইচ/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজনীতি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-14 20:49:42