bangla news

দেশের উন্নয়ন বিএনপির সহ্য হয় না: তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১২ ৪:০৮:২৬ পিএম
সভায় বক্তব্য রাখছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: বাংলানিউজ

সভায় বক্তব্য রাখছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: বাংলানিউজ

কক্সবাজার: তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যখন দেশ উন্নয়নের দিক দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে, সেই উন্নয়ন বিএনপির সহ্য হয় না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  ভারতে গিয়ে অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার পাশাপাশি দেশের স্বার্থ রক্ষার জন্য চুক্তি করে তখন বিএনপির শিক্ষিত নেতারা তা অপব্যাখ্যা দিয়ে নানা সমালোচনায় মেতে উঠেন। কিন্তু বিএনপির আবুল-তাবুল এ সব অপপ্রচার দেশের মানুষ এখন খায় না।

শনিবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে কক্সবাজারের রামুতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান,  বঙ্গবন্ধুর পরিবারবর্গ এবং রামু উপজেলায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে যেসব কীর্তিমান ভূমিকা রেখেছেন তাদের ইছালে ছওয়াব/পারলৌকিক শান্তি কামনায় মিলাদ মাহফিল ও বিশাল মেজবানের আগে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

রামু খিজারী স্কুল মাঠে এ মেজবানের আয়োজন করেন কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশে খালি পায়ের মানুষ দেখা যায় না, ছেঁড়া কাপড়ে মানুষ দেখা যায় না। গ্রামে কুঁড়েঘর দেখা যায় না। কুঁড়েঘর থাকলেও তা রান্নাঘর অথবা গোয়ালঘর হিসেবে ব্যবহার হয়। সেই কুঁড়েঘরও এখন টিনের ছাউনী। কুঁড়েঘর এখন শুধু কবিতায় আছে।

তিনি বলেন, যে ছেলে দশ বছর আগে বিদেশে গেছেন তিনি দেশে ফিরে নিজের গ্রাম চিনতে পারে না। গ্রামের যে মেঠো পথ মাড়িয়ে ছেলেটি বিদেশে গিয়েছিল, সেই মেঠো পথ এখন পিচঢালা সড়ক হয়ে গেছে। এভাবেই সারাদেশে এখন উন্নয়নের জোয়ার চলছে।

এমপি সাইমুম সরওয়ার কমলের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, কক্সবাজার মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের আশেক এমপি উল্লাহ রফিক, চকরিয়া-পেকুয়া আসনের এমপি জাফর আলম, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও রামু যুবলীগ সভাপতি রিয়াজুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক নিতীশ বড়ুয়া।

সভা শেষে শুরু হয় মেজবান। দক্ষিণ চট্টগ্রামের এ মেজবানে ৫০ হাজার মানুষের খাবারের আয়োজন করা হয়েছে।

সভায় এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল বলেন, বৃহত্তম এ মেজবানে দলীয় নেতাকর্মীদের দেওয়া ৫০টি গরু জবাই করা হয়েছে। এছাড়া অন্য সব ধর্মালম্বীদের জন্য ছাগল ও মুরগির ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সন্ধ্যা পর্যন্ত এ খাবারের আয়োজন চলবে।

** এখন সবাই আ’লীগের নৌকায় উঠতে চায়: তথ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৯
এসবি/আরআইএস/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   কক্সবাজার আওয়ামী লীগ বিএনপি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-12 16:08:26