bangla news

দুর্নীতির চক্র ভাঙতেই শুদ্ধি অভিযান: কাদের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-০৫ ১২:২৭:১০ পিএম
বক্তব্য রাখছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছবি: ডিএইচ বাদল

বক্তব্য রাখছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সারাদেশে যে শুদ্ধি অভিযান চলছে তা কোনো দল বা গোষ্ঠীর মধ্যে নয়। বাংলাদেশ থেকে দুর্নীতির চক্র ভেঙে দিতেই এ অভিযান।

প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতি-দুর্বৃত্তায়ন এবং মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছেন। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। এ অভিযান দেশের শান্তির জন্য। একটি কুচক্রী মহল এ অভিযানে খুশি নন। তারা দেশের মানুষের শান্তি চায় না। এরা দেশের ও সবার শত্রু। এ মহলের বিষয়ে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।

শনিবার (৫ অক্টোবর) রাজধানীর ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে দুস্থদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ শেষে তিনি এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ এবং মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির উদ্যোগে এ বস্ত্র বিতরণ কার্যক্রমের আয়োজন করা হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চায় তারা কেউই ছাড় পাবে না, সে যত বড় প্রভাবশালী হোক।

তিনি আরও বলেন, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে অভিযানের পাশাপাশি যারা অনুপ্রবেশকারী তাদের প্রতি দলের সভাপতির নির্দেশ রয়েছে। তৃণমূলের কমিটি গঠনে বিতর্কিতদের স্থান না দেওয়ার নির্দেশ আছে।

ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সুসম্পর্ক রয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারত সরকারের সঙ্গে বাংলাদেশের সুসম্পর্ক রয়েছে। আমরা একসঙ্গে সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে কাজ করবো।

সনাতন সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, পূজা উৎসবকে ঘিরে সারাদেশে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে সনাতন সম্প্রদায় তাদের ধর্মীয় কর্মকাণ্ড, বিশেষ করে পূজা উৎসব শান্তিপূর্ণ পরিবেশে উদযাপন করতে পারেন। পূজা উদযাপনে কোনো অপশক্তি যেন বাধা সৃষ্টি করতে না পারে, সেদিকেও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দৃষ্টি রাখতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, স্থানীয় সংসদ সদস্য হাজী সেলিম, আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত ও সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জী, মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি শৈলেন্দ্র নাথ মজুমদার ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কিশোর রঞ্জন মণ্ডল প্রমুখ। 

বাংলাদেশ সময়: ১২২৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৫, ২০১৯/আপডেট: ১৪০০ ঘণ্টা
ডিএন/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আওয়ামী লীগ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-05 12:27:10