ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ১১ আগস্ট ২০২০, ২০ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয় পার্টি

৩০ নভেম্বর জাপার জাতীয় কাউন্সিল: জিএম কাদের

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৯
৩০ নভেম্বর জাপার জাতীয় কাউন্সিল: জিএম কাদের সভায় বক্তব্য রাখছেন জাপার চেয়ারম্যান জিএম কাদের। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: জাতীয় পার্টির (জাপা) জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৩০ নভেম্বর (সোমবার)। এ উপলক্ষে দলের প্রেসিডিয়াম ও সংসদ সদস্যদের যৌথসভায় সর্বসম্মতিক্রমে জাতীয় কাউন্সিলের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে দলের চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে জাপা (কাজী জাফর) প্রেসিডিয়াম সদস্য এয়ার আহমদ সেলিমের যোগদান উপলক্ষে আয়োজিত সভায় জাপার চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের (জিএম কাদের) এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, কাউন্সিলে দলের নেতাকর্মীরাই জাপার আগামীদিনের নেতৃত্ব নির্বাচন করবেন।

নেতাকর্মীদের সিদ্ধান্তই আমি মেনে নেবো। পদ-পদবী বা ব্যক্তিগত সম্পদ অর্জনের জন্য আমি রাজনীতি করি না। দেশ, দেশের মানুষ ও দলের জন্য আমাদের রাজনীতি। কোনো লোভ-লালসার জন্য আমাদের রাজনীতি নয়।

জাপার ওই নেতা বলেন, জাপা বাংলাদেশের বড় তিনটি রাজনৈতিক দলের অন্যতম। জাপার দেশ পরিচালনায় অভিজ্ঞতা ও ঐতিহ্য রয়েছে। দেশের রাজনৈতিক শূন্যতায় দেশের মানুষ এখন জাপার দিকে তাকিয়ে আছে। দেশের প্রজন্মের সামনে রাজনীতি করার অন্যতম প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে জাপা। তাই এখনই দলকে আরও শক্তিশালী করতে পারলে আগামীদিনের রাজনীতিতে এবং দেশ পরিচালনার প্রতিযোগিতায় জাপা আরও এগিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, সারাদেশে দলকে আরও শক্তিশালী করতে ৮ বিভাগে ৮টি সাংগঠনিক টিম করা হয়েছে ও সাংগঠনিক টিমের পরার্মশ অনুযায়ী দলকে আরও বেগবান করা হবে। জাতীয় পার্টি গঠনতন্ত্র এবং প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নির্দেশনায় চলছে। জাতীয় পার্টিতে বিভেদের অবকাশ নেই। বিভ্রান্তির কোনো সুযোগ নেই। বিশৃঙ্খলার সুযোগ জাতীয় পার্টিতে থাকবে না। সঠিক পথে ও সুশৃঙ্খলভাবে জাপা বাংলাদেশের রাজনীতিতে এগিয়ে যাবে।

সভাপতির বক্তব্যে জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, দলের ওপরে বারবার আঘাত এসেছে। নানা ষড়যন্ত্রের মধ্য দিয়েই জাপা এগিয়ে যাচ্ছে। পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দু’বার পাঁচটি করে আসনে জয়ী হয়েছেন, এটা ইতিহাস।

তিনি বলেন, গঠনতন্ত্রের ২০/১/ক ধারা মোতাবেক পল্লীবন্ধু তার অবর্তমানে গোলাম মোহাম্মদ কাদেরকে পার্টির চেয়ারম্যান নির্বাচন করেছেন। এটা গঠনতন্ত্র মোতাবেকই হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বেগম রওশন এরশাদ আমাদের মায়ের মতো, তিনি আমাদের অভিভাবক। আমরা বিশ্বাস করি কিছু মানুষের পরামর্শে বেগম রওশন এরশাদকে বিভ্রান্ত করা যাবে না। তাকে অবশ্যই অনুধাবন করবেন এবং জাপার এগিয়ে চলার রাজনীতিতে আমাদের অভিভাবক হয়েই থাকবেন।

যোগদান অনুষ্ঠানে প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সংসদ সদস্য সালমা ইসলাম, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান এইচ এন এম  শফিকুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৯
এসএমএকে/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa