ঢাকা, সোমবার, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

‘ওসমানীকে ছাড়া স্বাধীনতাযুদ্ধের ইতিহাস অসম্পূর্ণ ’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-০১ ৫:১৬:৪৪ পিএম
এমএজি ওসমানীর স্কেচ। ছবি: সংগৃহীত

এমএজি ওসমানীর স্কেচ। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: ‘যার নামটি বাদ দিলে আমাদের স্বাধীনতাযুদ্ধের ইতিহাস পুরোটাই অসম্পূর্ণ থেকে যাবে সেই নামটি হলো জেনারেল এম এ জি ওসমানী। মহান মুক্তিযুদ্ধে তিনি সামরিক নেতৃত্ব দেন। তিনি ছিলেন আজীবন গণতন্ত্রকামী, ধার্মিক ও খাঁটি দেশপ্রেমিক। তার নামটি বাদ দিলে স্বাধীনতা যুদ্ধের ইতিহাস রচনাই অসম্পূর্ণ থেকে যাবে।’

রোববার (০১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে আয়োজিত এক স্মরণ সভায় প্রধান বক্তা দলটির মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া এসব কথা বলেন। 

মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি জেনারেল মুহম্মদ আতাউল গনি ওসমানীর ১০১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ এ সভার আয়োজন করে। 

তিনি বলেন, জেনারেল ওসমানী ছিলেন আদর্শ, দেশপ্রেম ও মূল্যবোধের এক অনন্য প্রতীক। গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি ছিল তার অগাধ বিশ্বাস ও আস্থা। তিনি ছিলেন একজন কিংবদন্তি। অগ্নিপুরুষ ওসমানী এক মহান আদর্শের প্রতীক। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার অর্নিবাণ শিখায় ভাস্বর। 

ন্যাপ মহাসচিব অভিযোগ করেন, জেনারেল ওসমানীর উজ্জ্বল ব্যক্তিত্বের সামনে লুটেরা ও ‎‎ধোকাবাজরা নিস্প্রভ হয়ে পড়বে। ‎এই ভয় থেকেই তাকে ভুলিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টা চলছে। কিন্তু তা কখনও সম্ভব নয়।

বাংলাদেশ ন্যাপের ভাইস চেয়ারম্যান কাজী ফারুক হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন এনডিপির মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, বাংলাদেশ ন্যাপের যুগ্ম-মহাসচিব মো. নুরুল আমান চৌধুরী, মো. আতিকুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভূঁইয়া, সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সাত্তার, ঢাকা মহানগর যুগ্ম সম্পাদক মো. শামিম ভূঁইয়া, শ্রম সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান, মহিলা সম্পাদিকা সাদিয়া ইসলাম ঈমন, যুব ন্যাপ সমন্বয়কারী বাহাদুর শামিম আহমেদ পিন্টু প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৭১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৯
এমএইচ/এমএ 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-01 17:16:44