ঢাকা, বুধবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী রোববার

মহসিন হোসেন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-০১ ৪:৪৯:০৭ এএম
বিএনপির লোগো। ছবি: সংগৃহীত

বিএনপির লোগো। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী রোববার (০১ সেপ্টেম্বর)। ১৯৭৮ সালের এই দিনে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও মতের অনুসারীদের এক মঞ্চে নিয়ে দলটি প্রতিষ্ঠা করেন।

জিয়াউর রহমানের মৃত্যুর পর তার সহধর্মিণী খালেদা জিয়া ৩৭ বছর ধরে বিএনপির হাল ধরে আছেন। স্বামীর মৃত্যুর পর নিছক একজন গৃহবধূ থেকে রাজনীতিক হয়ে ওঠা সেই নেত্রী এখন কারাগারে। তাকে ছাড়াই ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করবে বিএনপি। 

অন্যদিকে চেয়ারপারসন কারাগারে যাওয়ার পর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পাওয়া তারেক রহমানও দীর্ঘদিন লন্ডনে প্রবাসী। এমন পরিস্থিতিকে বিশ্লেষকদের কেউ কেউ ‘নাজুক’ হিসেবে উল্লেখ করলেও দলটির সবচেয়ে বড় সফলতা হলো—দেশের অন্যতম বড় দল আওয়ামী লীগের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী এখনো বিএনপিই।

রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ মনে করেন, অনেক প্রতিকূল অবস্থা সত্ত্বেও বিএনপিকে কেউ ভাঙতে পারেনি। দলটি এ দেশে এখনো ক্ষমতার রাজনীতিতে মূল প্রতিদ্বন্দ্বী। বিএনপির জন্য এটি অনেক বড় সফলতা। তবে আইনি লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা বিএনপির সামনে এই মুহূর্তে প্রধান চ্যালেঞ্জ।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মতে, বিএনপিকে ধ্বংস করার জন্য বহু বছর ধরে যারা চেষ্টা করে আসছে; দলটির ৪১ বছর পূর্তি তাদের জন্য নতুন একটি বার্তা। এই দলের বিরুদ্ধে বহু ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। তবে দল ফিনিক্স পাখির মতো আবার উঠে দাঁড়িয়েছে।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের আদর্শে অবিচল না থাকলে অন্য অনেক দলের মতো বিএনপিও হারিয়ে যেত। কিন্তু এক যুগ ধরে চরম অন্যায়-অত্যাচার ও নিপীড়নের পরও বিএনপি টিকে আছে; এটাই বাস্তবতা।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পৃথক বাণীতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিএনপি নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দেওয়া বাণীতে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আমি বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মী, শুভানুধ্যায়ী এবং দেশবাসীকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। আজ থেকে ৪১ বছর আগে দেশের এক চরম ক্রান্তিকালে মহান স্বাধীনতার ঘোষক, বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা, বিশ্বনন্দিত নেতা, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এদেশের মানুষকে একদলীয় দু:শাসনের করাল গ্রাস থেকে রক্ষার জন্য বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বিএনপি দেশ, দেশের মানুষের উন্নয়ন এবং বিশ্বের সকল রাষ্ট্রের সঙ্গে সমমর্যাদার ভিত্তিতে সৌহার্দ্য ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এই মহান দিনে দলের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের দলকে আরও গতিশীল করার ক্ষেত্রে মনেপ্রাণে কাজ করার জন্য প্রস্তুত থাকার আহবান জানাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান দু:সময়ে জনগণকে সংগঠিত করার কোনও বিকল্প নেই। দেশ আজ দু:শাসন কবলিত। মানুষ ভয়াবহ নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে দিনাতিপাত করছে। গুম-খুনের আতঙ্ক মানুষের নিত্য সঙ্গী। আইন, বিচার, প্রশাসনকে সরকার কব্জার মধ্যে রাখার চেষ্টায় মরিয়া। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে বেআইনী কাজ করতে বাধ্য করা হচ্ছে। ফলে সমাজে দেখা দিয়েছে বিপজ্জনক বিশৃঙ্খলা। খুন-খারাবী, নারী-শিশু নির্যাতন, অপহরণ, গুপ্তহত্যা ইত্যাদি অনাচারের মাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে। কারণ সরকার যেখানে জনগণের প্রতিপক্ষ সেখানে মানুষের জানমালের কোন নিরাপত্তা থাকতে পারে না। সুতরাং জনগণের নিরাপত্তা বিধানের জন্যই গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হবে। বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন বেগবান করতে হবে। তিনি প্রতিহিংসার শিকার। কারণ তিনিই গণতন্ত্রের প্রতীক এবং জনগণের নাগরিক ও বাক-ব্যক্তি স্বাধীনতার পক্ষে প্রধান কণ্ঠস্বর। পাশাপাশি দেশের যেকোনো ক্রান্তিলগ্নে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকে অন্যায় ও জুলুমের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর প্রতি গুরুত্বারোপ করতে হবে। বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এই দিনে আমি দেশবাসীকে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির পতাকা তলে ঐক্যবদ্ধ থাকার জন্য উদ্বাত্ত আহ্বান জানাই।”

কর্মসূচি: বিএনপির ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ১ সেপ্টেম্বর রোববার সকাল সকাল ৬টায় নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সারাদেশে বিএনপির সকল কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে।

একই দিন সকাল ১০টায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ এবং সকল পর্যায়ের নেতাকর্মী শেরেবাংলা নগরে সাবেক রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান বীর উত্তমে মাজারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করবেন।

এছাড়া এদিন বেলা ৩টায় বিএনপির উদ্যোগে রাজধানীর রমনায় ইন্সটিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স-বাংলাদেশ মিলনায়তনে ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য রাখবেন।

এদিকে দিনটি উপলক্ষে বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনগুলো শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, দলীয় পতাকা উত্তোলন, দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণসহ নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

এছাড়া কেন্দ্রীয়ভাবে একটি শোভাযাত্রা করা হবে সোমবার (০২ সেপ্টেম্বর)। নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে বেলা ২টায় শোভাযাত্রাটি শুরু হয়ে মগবাজার গিয়ে শেষ হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৪৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৯
এমএইচ/জেআইএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-09-01 04:49:07