ঢাকা, শনিবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

খালেদা মুক্ত হলে সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না: ফারুক

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১৮ ৪:০২:১৪ পিএম
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখছেন জয়নুল আবদিন ফারুক। ছবি: ডিএইচ বাদল

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখছেন জয়নুল আবদিন ফারুক। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যদি এই মুহূর্তে কারাগার থেকে বের হয়ে আসেন, তাহলে সরকার এক মিনিটও ক্ষমতায় থাকতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক।

রোববার (১৮ আগস্ট) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অপরাজেয় বাংলাদেশ নামে একটি সংগঠনের উদ্যোগে চামড়াশিল্প ধ্বংসকারীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রাজপথেই সব সমস্যার সমাধান, এমন কথা উল্লেখ করে জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, এই রাজপথে থাকার অভিজ্ঞতা আমাদের আছে। রাজপথে আমরা বহুবার আন্দোলন-সংগ্রাম করেছি। এতিমের চামড়ার টাকা যারা লুট করতে পারে, অতীতে লুটপাটের অভিজ্ঞতা যে সরকারের আছে, সেই সরকারের কাছে দাবি করে কোনো লাভ নেই। তাই আসুন রাজপথে নেমে গণতন্ত্রের মা দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করি।

নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে সরকারি সিদ্ধান্তে মুক্ত করা যাবে না। তাই তাকে যদি মুক্ত করতে হয়, তাহলে সবাইকে মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে রাস্তায় নামতে হবে। বেগম জিয়াকে মুক্ত করার জন্য কয়জন প্রাণ দিয়েছেন? কয়টি মামলা খেয়েছেন? আসুন, রাস্তায় লড়াই করেন। লড়াই করলে যারা এতিমের হক চামড়াশিল্পকে ধ্বংস করে দিয়েছে, সেই সিন্ডিকেট আপনা-আপনিই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে। এই সরকারের কাছে দাবি করে কোনো ফল পাওয়া যাবে এটা আমি বিশ্বাস করি না।

বিএনপিকে মিডিয়া বাঁচিয়ে রেখেছে, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, কিছুদিন আগে উনি অসুস্থ ছিলেন। আমরা উনার জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করেছিলাম, উনি যেন বেঁচে থাকেন। আমরা প্রত্যাশা করেছিলাম, তিনি অসুস্থ অবস্থা থেকে ফিরে এসে বিরোধী দলের গঠনমূলক সমালোচনা করবেন। কিন্তু আমরা কি দেখলাম? তার কথাবার্তা সেই আগের মতোই আছে। তার মতো একজন বিজ্ঞ রাজনীতিবিদ যদি বিরোধী দলকে এমন আন্ডার এস্টিমেট করে কথা বলে, এটা কি শোভা পায়? আমি যদি তাকে বলি, আপনাদের রাজনীতি টিকিয়ে রেখেছে পুলিশ। আপনারা তো পুলিশের ওপর নির্ভর করে ক্ষমতায় টিকে আছেন।

চামড়াশিল্প ধ্বংসকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়ে সাবেক এই বিরোধীদলীয় চিফহুইপ বলেন, চতুর্থ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী চামড়াশিল্পকে আজ কতিপয় মহল ধ্বংস করে দিল। দাম না পেয়ে হাজারো চামড়া মাটির নিচে পুঁতে ফেলা হলো। আজকে ৬ দিন হল ঈদ চলে গেছে। সরকার যদি সত্যিকার অর্থে জনবান্ধব সরকার হতো, তাহলে এই গরিবের হকের এতিমের চামড়া লুণ্ঠনকারীদের বিচার হতো। কেনো এখনও এই গরীবের টাকা আত্মসাৎকারীদের খুঁজে বের করা হচ্ছে না? 

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি খলিলুর রহমান ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন সিরাজীর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন- বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, কল্যাণ পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদুর রহমান তামান্না, তাঁতী দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ড. কাজী মনিরুজ্জামান মনির, কৃষকদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০১ ঘণ্টা, আগস্ট ১৮, ২০১৯
এমএইচ/এসএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বিএনপি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-18 16:02:14