ঢাকা, সোমবার, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৬ আগস্ট ২০১৯
bangla news

ত্রাণের জন্য দেশে হাহাকার চলছে: রিজভী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-২২ ২:৪৫:১৬ পিএম
রুহুল কবির রিজভী/ফাইল ফটো

রুহুল কবির রিজভী/ফাইল ফটো

ঢাকা: সারা দেশে বন্যার্তরা ত্রাণের জন্য আহাজারি করছে। নারী-শিশু নির্যাতন মহামারি আকার ধারণ করেছে। শিশুদের কাটা মাথা পাওয়া যাচ্ছে। এগুলোই কি আওয়ামী লীগের উন্নয়ন? তারা বলছে দেশে উন্নয়ন হয়েছে। আমি বলি- উন্নয়ন মূলত তাদের চাপাবাজিতে হয়েছে। 

সোমবার (জুলাই ২২) দুপুরে নয়াপল্টনে জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক কমিটির নির্বাহী সভায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী একথা বলেন।

রিজভী বলেন, শেখ হাসিনার প্রতিহিংসায় গণতন্ত্রের মা খালেদা জিয়া কারাগারে বন্দি। এই সরকার গণতন্ত্রের ন্যূনতম স্পেস দিচ্ছে না। যারা মুক্তভাবে দু’একটি কথা বলে তাদের কারাগারে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, ডাকাতের মতো রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করেছেন। জনগণকে ত্যাজ্য করেছেন। গণতন্ত্রে একটু স্পেস দিলে রাস্তা দিয়ে নয়, গলি দিয়ে পালানোরও সুযোগ পাবেন না। 

রিজভী বলেন, গাজীপুর যেতে পাঁচ ঘণ্টা সময় লাগে, ময়মনসিংহ যেতে লাগে সাত ঘণ্টা। এই কি দেশে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের নমুনা? ডেঙ্গু মহামারি আকার ধারণ করেছে। অথচ এসবের দিকে সরকারের কোনো নজর নেই। তাদের নজর এখন বাংলাদেশ ব্যাংকের দিকে, তাদের দৃষ্টি এখন সোনালী ব্যাংক আর জনতা ব্যাংকের দিকে।

রিজভী আরও বলেন, ‘বন্যা হচ্ছে উত্তরবঙ্গ থেকে মধ্যবঙ্গ পর্যন্ত, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, সিরাজগঞ্জসহ বিভিন্ন জায়গায়। আর দেশের এই দুর্যোগ মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী ১৮ দিনের ছুটিতে লন্ডন চলে গেলেন। বাহ, এই হচ্ছে দায়িত্ব সরকারের। এর কারণ তাদের ভোট লাগে না, নির্বাচন লাগে না। তাদের লাগে পুলিশ আর র‌্যাব। আজ কুড়িগ্রাম লালমনিরহাটের মানুষ তিস্তা নদীতে ভাসছে। আর প্রধানমন্ত্রী লন্ডনে বসে বৈঠক করে যাচ্ছেন। 

মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম মাহতাবের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, যুগ্ম-আহ্বায়ক অধ্যক্ষ সেলিম মিয়া, জাকির হোসেন খান প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৫ ঘণ্টা, জুলাই ২২, ২০১৯
এমএইচ/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-22 14:45:16