bangla news

অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী বিরোধীদল দরকার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৭ ৫:২৬:৫০ এএম
সভায় বক্তব্য রাখছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। ছবি: বাংলানিউজ

সভায় বক্তব্য রাখছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। ছবি: বাংলানিউজ

ময়মনসিংহ: এ মুহূর্তে বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী বিরোধীদল প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। 

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সন্ধ্যায় নগরের অ্যাডভোকেট তারেক স্মৃতি অডিটোরিয়ামে আওয়ামী লীগের ময়মনসিংহ বিভাগের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। 

সভায় কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, সত্যিকার অর্থে বাংলাদেশে এ মুহূর্তে গণতন্ত্রের জন্য প্রয়োজন গণতান্ত্রিক চেতনায় বিশ্বাসী, গঠনমূলক, একটি অসাম্প্রদায়িক বিরোধীদল। মানুষের যেমন দু’টি পা, ঠিক তেমনি গণতন্ত্রের দু’টি পার্ট। একটি সরকারদল এবং আরেকটি বিরোধীদল। একটি শক্তিশালী বিরোধীদল থাকা দরকার। 

তিনি বলেন, যে দলটি এখন বিরোধীদল, আমি বলবো অবশ্যই বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি। আরেকটি জামায়াত। জামায়াত প্রত্যক্ষভাবে স্বাধীনতাবিরোধী। এখনো তারা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না। তারা জাতির কাছে ক্ষমা চায়নি। বিএনপি জামায়াতের লালন-পালনকারী দল। আজকে যে দলটি বিরোধীদল সেই বিরোধীদলটি আমাদের নয়, দেশ ও জনগণের শত্রু, স্বাধীনতার শত্রু। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া লন্ডনে রিমোট কন্ট্রোল চেপে, স্কাইপে দল চালান। এ তারেক জিয়া একবার পল্টনে ছাত্র শিবিরের মিটিংয়ে বলেছিলেন, শিবির-ছাত্রদল, বিএনপি-জামায়াত একই বৃত্তে দু’টি ফুল, একই মায়ের দু’টি সন্তান।

বাম দলগুলো সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী না হওয়ায় তারা বিরোধীদলের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে পারছে না বলেও নিজের বক্তব্যে ইঙ্গিত দেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর এ সদস্য। তিনি বলেন, যারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে ছিল, যারা আমাদের সঙ্গে যুদ্ধ করেছে বিশেষ করে বাম রাজনৈতিক দলগুলো, ১৪ দল আমাদের সঙ্গে আছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় তারা বিশ্বাস করে। কিন্তু তারা সেইভাবে সংগঠিত না। ছাত্র ইউনিয়ন ও ছাত্রলীগ এক সময় সমান শক্তিশালী সংগঠন ছিল। গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতার জন্য একটি গঠনমূলক শক্তিশালী বিরোধীদল থাকা উচিত। 

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আমির হোসেন আমু। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী। 

বাংলাদেশ সময়: ০৫১৯ ঘণ্টা, জুলাই ১৭, ২০১৯
এমএএএম/এসকে/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ময়মনসিংহ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-07-17 05:26:50