ঢাকা, শুক্রবার, ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ আগস্ট ২০১৯
bangla news

গাড়িতে ধর্ষণ, জাপা নেতার বিরুদ্ধে মামলা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৬ ৯:২২:২৮ পিএম
জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর সিকদার লোটন। ছবি: সংগৃহীত

জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর সিকদার লোটন। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর সিকদার লোটনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন এক নারী।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) বাদীর আইনজীবী কাজী হুমায়ুন কবির বাংলানিউজকে বিষয়টি জানান।

নিজেকে লেখিকা পরিচয় দেওয়া ৩২ বছর বয়সী ওই নারী গত ১১ জুলাই ঢাকার এক নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে এ মামলা করেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু নাসের মো. জাহাঙ্গীর আলম ওই নারীর জবানবন্দি নেওয়ার পর অভিযোগের বিষয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়ে প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছেন।

মামলার বাদী অভিযোগে বলেন, আসামি লোটন সিকদার অ্যান্ড পাবলিকেশন ও আকাশ পাবলিকেশনের মালিক। লেখিকা হওয়ায় আসামির সঙ্গে পরিচয় হয় তার। তিনি ‘সংগঠক ও সংগঠন’ রাজনৈতিক বইটি লিখতে আসামি লোটনের সঙ্গে সহকারী লেখিকা হিসেবে কাজ করেন। পরে আসামির প্রতিষ্ঠান ‘আকাশ পাবলিকেশন’ থেকে প্রকাশিত ‘সময়ের আয়নায় পল্লীবন্ধু’ ছবি অ্যালবামের নির্দেশনা ও অঙ্গসজ্জার কাজও করেন তিনি। সেসময় ওই কাজের জন্য তাকে আসামির সঙ্গে দেখা করতে হতো। আসামি বিভিন্ন সময় ফোনে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ম্যাসেঞ্জারে তার কাছে যৌন উত্তেজক ছবি পাঠানোর পাশাপাশি নোংরা প্রস্তাব দিতো।

মামলায় বলা হয়, চলতি বছরের পহেলা জানুয়ারি আসামির জন্মদিনের অনুষ্ঠানে তার অনুরোধে বিউটি বোর্ডিং এ আসেন তিনি। অনুষ্ঠান শেষে আসামি তাকে গাড়িতে করে বাড়িতে নামিয়ে দেওয়ার কথা বলে রাজধানীর মোহাম্মাদপুর এলাকায় নিয়ে আসেন। ওই এলাকার একটি নিরিবিলি স্থানে রাত ৯টার দিকে গাড়িতেই তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে আসামি। সে সময় মোবাইল ফোনে কিছু ছবি ও ভিডিও ধারণ করে রাখে আসামি। এরপর থেকে ওই ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে নিয়মিত ধর্ষণ করতো আসামি। সর্বশেষ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ৩০ জুন বিউটি বোর্ডিংয়ের দোতলার একটি কক্ষে তাকে ধর্ষণ করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ ঘণ্টা, জুলাই ১৬, ২০১৯
এমএআর/এইচএডি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ধর্ষণ জাতীয় পার্টি যৌন হয়রানি মামলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-16 21:22:28