bangla news

রংপুরেই এরশাদের কবর খুঁড়ছেন জাপা নেতারা

বেরোবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৫ ৫:২৯:১৯ পিএম
কবর খুঁড়ছেন রংপুর জাপা নেতারা, ছবি: বাংলানিউজ

কবর খুঁড়ছেন রংপুর জাপা নেতারা, ছবি: বাংলানিউজ

রংপুর: রংপুরে দাফন সম্পন্ন করতে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জন্য তার পল্লীনিবাসে কবর খুঁড়ছেন রংপুর জাপা নেতারা।

সোমবার (১৫ জুলাই) বিকেল ৩টার দিকে এরশাদের ‘পল্লীনিবাসে’র লিচু বাগানে কবর খোঁড়ার কাজ শুরু করেন জাপার স্থানীয় নেতাকর্মীরা। এর নেতৃত্ব রয়েছেন রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।

এ সময় তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের প্রিয় নেতার মরদেহ গ্রহণে আমরা প্রস্তুত। আমাদের সঙ্গে রাজশাহী বিভাগীয় জাতীয় পার্টির নেতারা রয়েছেন। তারাও রংপুরে এরশাদের মরদেহ দাফনে একমত। যেকোনো মূল্যে এরশাদের মরদেহ রংপুরে দাফন করা হবে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীসহ জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা ও পরিবারের সদস্যদের সার্বিক সযোগিতা কামনা করছি আমরা।

সিটি মেয়র বলেন, সাধারণ মানুষ যেনো স্বাচ্ছন্দ্যে এখানে এসে কবর জিয়ারত করতে পারেন, সে লক্ষ্যেই খোলা জায়গায় এরশাদকে দাফন করা হবে।

পরিবারের কিছু সদস্য এবং নিজ দলের কিছু নেতার কারণে এরশাদকে রংপুরে দাফন করতে বাধা দেওয়া হচ্ছে উল্লেখ করে মেয়র মোস্তাফিজার রহমান বলেন, জাতীয় পার্টিতে কিছু ব্রোকার আছে। এরা যখন যার, তখন তার ভূমিকা পালন করে। এক্ষেত্রে আমরা যারা ত্যাগী নেতাকর্মী আছি, এর আগেও তাদের যড়যন্ত্র নস্যাৎ করেছি, এখনও করবো এবং আগামীতে করবো।

এ সময় সুনির্দিষ্ট করে কারও নাম উল্লেখ না করলেও রংপুরে এরশাদের দাফন হলে যাদের গায়ে লাগবে তারাই পর্দার আড়ালে থেকে ষড়যন্ত্র করছে বলেও জানান মেয়র।

মেয়র মোস্তাফিজার রহমান বলেন, সাধারণ মানুষ থেকে পল্লীবন্ধু এরশাদকে বিচ্ছিন্ন করতে এবং দলকে নিশ্চিহ্ন করতে একটি মহল এসব চক্রান্ত করছে।

তিনি বলেন, আমরা চাই এরশাদের স্মৃতিবিজড়িত রংপুর নগরীর দর্শনা মোড়ের পল্লীনিবাসে তার মরদেহ দাফন করা হোক। এজন্য রংপুর ও রাজশাহী বিভাগীয় জাতীয় পার্টির নেতারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে রংপুরে কবর খোঁড়ার কাজ শুরু করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৫ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০১৯
ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-15 17:29:19