bangla news

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে কর্মসূচি দেবে ২০ দল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২৫ ১:৫২:২৩ এএম
২০ দলীয় জোটের বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলন। ছবি: বাংলানিউজ

২০ দলীয় জোটের বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ২০ দলীয় জোটের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, খালেদা জিয়ার দ্রুত মুক্তির লক্ষে আগামী জুলাই মাসে ঢাকাসহ বিভিন্ন মহানগরে কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২০ দলীয় জোট। এ বিষয়ে আগামী সভায় সুনির্দিষ্ট সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।  

সোমবার (২৪ জুন) রাত ৯টায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলন তিনি একথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, নির্বাচনের নামে প্রহসন করে দেশের জনগণকে তাদের ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করে যে সংসদ ও সরকার প্রতিষ্ঠা হয়েছে তাকে অনৈতিক অবৈধ ও অগ্রহণযোগ্য বলে মনে করে ২০ দল। 

তিনি বলেন, সভায় সদ্য পেশকৃত জাতীয় বাজেটে জনগণের স্বার্থ রক্ষার পরিবর্তে তাদের ওপর আরও করের বোঝা চাপানোর তীব্র নিন্দা জানানো হয়। এই বাজেটকে গরীবকে আরও গরীব এবং ধনীকে আরও ধনী বানানোর বাজেট বলে চিহ্নিত করে অবিলম্বে গণমানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয় বাজেটের এমন সব প্রস্তাব বাতিল করার জোর দাবি জানানো হয়।

কর্নেল অলি আহমদের সংবাদ সম্মেলন ও নতুন জোট গঠনের গুজবের বিষয়ে নজরুল ইসলাম বলেন, এলডিপির মহাসচিব গ্রামের বাড়িতে থাকায় আসতে পারেননি। তবে যুগ্ম-মহাসচিব শাহাদত হোসেন সেলিম উপস্থিত আছেন। আমাদের জোটের কোনো একটি দল তাদের পক্ষ থেকে জনগণকে কিছু বলতে চাইলে বলতে পারে। কি বলবেন, সেটা না শোনা পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করা ঠিক হবে না।
 
সভায় জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর)-এর নব নির্বাচিত মহাসচিব জাফর উল্লাহ খান চৌধুরীকে স্বাগত জানানো হয় এবং কুলাউড়ায় রেল দুর্ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করা হয় বলে জানান নজরুল ইসলাম।  

বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপি বিজয়ী হওয়ার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে নজরুল ইসলাম আরও বলেন, ওই আসনে বিএনপির জয়লাভ না করার কোনো কারণ নাই। ওখানে সব সময় বিএনপিই জয়ী হয়, এবারও জয়ী হয়েছে, এটা ঠিক আছে। জয়ী না হলেই বরং অবাক করার ব্যাপার ছিল।

এর আগে, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে পৌনে ৯টা পর্যন্ত বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে জোটের বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- এনপিপির চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ইসলামী ঐক্যজোটের (একাংশ) আবদুর রকিব, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) মহাসচিব জাফর উল্লাহ খান চৌধুরী লাহোরী, কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এমএম আমিনুর রহমান, বাংলাদেশ ন্যাপের চেয়ারম্যান এমএন শাওন সাদেকী, জাগপার মহাসচিব খন্দকার লুৎফর রহমান, এলডিপির যুগ্ম-মহাসচিব শাহাদত হোসেন সেলিম, পিপলস লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাহবুব হোসেন, ন্যাপের (ভাসানী) আজহারুল ইসলাম, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের একাংশের ভারপ্রাপ্ত  মুফতি মহিউদ্দিন ইকরাম, ডেমোক্রেটিক লীগের সাইফুদ্দিন মনি, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের জুলফিকার বুলবুল চৌধুরী, এনডিপির কারী আবু তাহের, সাম্যবাদী দলের ডা. নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ০১৪৯ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১৯
এমএইচ/এনটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-06-25 01:52:23