ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২৫ জুন ২০১৯
bangla news

জিয়া বাংলা বলতে পারতেন না: শামসুদ্দিন মানিক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১৩ ১:৫৪:৩৩ পিএম
সেমিনারের অতিথি মঞ্চে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিকসহ অন্যরা। ছবি: জিএম মুজিবুর

সেমিনারের অতিথি মঞ্চে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিকসহ অন্যরা। ছবি: জিএম মুজিবুর

ঢাকা: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বাংলা বলতে পারতেন না বলে দাবি করেছেন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক। জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধে একটি সেক্টরের কমান্ডার হিসেবে যুদ্ধ করলেও শামসুদ্দিন মানিকের মতে, জিয়া মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানের ‘চর’ হয়ে অংশ নেন।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধুর ৬ দফা ও আমাদের স্বাধীনতা’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি শামসুদ্দিন মানিক এ মন্তব্য করেন। জাগো বাংলা ফাউন্ডেশন সেমিনারটির আয়োজন করে।

জিয়াউর রহমানকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘খুনের মূল পরিকল্পনাকারী’ উল্লেখ করে শামসুদ্দিন মানিক বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার প্রসিকিউটর ছিলাম আমি। মামলা থেকে এটা পরিষ্কার যে, বঙ্গবন্ধু হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী জিয়া। তিনি মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানের চর হিসেবে যোগ দেন। পাকিস্তানের একটি জাহাজ খালাস করতে গিয়ে মুক্তিবাহিনীর নজরে পড়ে যান। তখন জীবন বাঁচাতে মুক্তিযোদ্ধা সাজেন। জিয়াউর রহমান বাংলাও বলতে পারতেন না। 

১৯৬৬ সালে বঙ্গবন্ধুর ৬ দফা প্রস্তাবকে বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ উল্লেখ করে এ অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি বলেন, তার ছয় দফা ছিল বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ। সেই ছয় দফা যদি সেদিন মেনে নেওয়া হতো, তাহলে সেদিনই বাংলাদেশ স্বাধীন রাষ্ট্রে পরিণত হতো। ছয় দফার প্রতি জনগণের পূর্ণ সমর্থন ছিল। বঙ্গবন্ধু ভাষা আন্দোলনেরও নেতৃত্ব দেন, যা আমাদের দেশে সেভাবে প্রচারিত হয় না।

সেমিনারে জাতীয় বিশ্বিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. হারুন অর রশিদ লিখিত মূল প্রবন্ধ পাঠ করা হয়। এতে ছয় দফা, দফার পটভূমি, দফা প্রচারকালে বঙ্গবন্ধুর বক্তব্য এবং স্বাধীনতাযুদ্ধে এর প্রভাব তুলে ধরা হয়।

জাগো বাংলা ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী নাসির আহমেদের সভাপতিত্বে সেমিনারে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম, সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্য সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল প্রমুখ। 

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৬ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০১৯
এসএইচএস/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-13 13:54:33