ঢাকা, রবিবার, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ২১ জুলাই ২০১৯
bangla news

আদালতে জামিন মিললেই খালেদা মুক্তি পাবেন: ড. হাছান

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-০২ ৩:৫৪:৩৭ পিএম
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: বাংলানিউজ

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যদি ঈদের পর আইনি প্রক্রিয়ায় আদালতে জামিন পান তাহলে মুক্তি পাবেন। তার মুক্তির ব্যাপারে সরকারের কোনো হাত নেই। 

রোববার (০২ জুন) আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির সভার শুরুতে দেওয়া বক্তব্যের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ঈদের আগে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য বিএনপির দাবি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পদক ড. হাছান বলেন, ঈদের আগে খালেদা জিয়ার মুক্তি এটা সরকারের বিষয় নয়। তার মুক্তি আদালতের হাতে। 

‘ঈদের পর খালেদা জিয়া যদি আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আদালত থেকে জামিন পান তাহলে তার মুক্তি হবে। তাকে আইনি প্রক্রিয়ায় আদালতের মাধ্যমে মুক্ত করতে হবে। এ ব্যাপারে সরকারের কোনো হাত নেই। আন্দোলন করে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার কোনো সুযোগ নেই।’
 
বিএনপির আন্দোলন প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বহুবছর ধরেই বিএনপির আন্দোলনের কথা শুনে আসছি। ঈদের পর আন্দোলন, এই সময় পর আন্দোলন- এই রকম অনেক কথা শুনেছি। কোন ঈদের পর আন্দোলন করবে সেটা তাদের ব্যাপার। তবে আন্দোলন করে খালেদা জিয়ার মুক্তির কোনো সুযোগ নেই।
 
সাবেক মন্ত্রী এ কে খন্দকারের বক্তব্য প্রত্যাহার প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, একজন লেখক যেকোনো সময় তার বক্তব্য প্রত্যাহার করতে পারেন। এটা লেখকের স্বাধীনতা। তবে এক্ষেত্রে একটা প্রশ্ন থেকেই যায় তিনি কেন অন্যের কথায় প্রভাবিত হবেন! 

‘তারপরও তিনি (এ কে খন্দকার) তার বক্তব্য প্রত্যাহার করেছেন এ জন্য ধন্যবাদ। যারা তাকে প্রভাবিত করেছেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা একে খন্দকারকেই নিতে হবে। যারা তাকে প্রভাবিত করেছেন তাদের বিরুদ্ধে তিনি যদি আদালতে যান ব্যবস্থা হতে পারে। সেটা তার ব্যাপার।’
 
তথ্যমন্ত্রী বলেন, এবারের রোজার আগে সরকার নিত্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ রেখেছিল। ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আগে থেকে আলোচনা করে কেউ যেন রোজায় দাম না বাড়ায় সে ব্যবস্থা সরকার নেয়। এর ফলে নিত্য পণ্যের দাম বাড়েনি, মানুষ স্বস্তিতে রোজা রাখতে পেরেছে। 

এবার ঈদযাত্রা সাধারণ মানুষের ভোগান্তি নেই বলেও দাবি করেন তিনি। 

ঈদযাত্রা নিয়ে বিএনপির সমালোচনা প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ঈদে মানুষ নির্বিঘ্নে বাড়ি যেতে পারছেন। এরপরও কিছু মানুষ আছে যারা গৎবাঁধা সমালোচনা করছেন। গত কয়েক দিন ধরে দেখছি বিএনপি নানা কথা বলছে। কিন্তু তাদের সময় কি দুর্ভোগ ছিল সেটা তারা দেখেন না!
 
এ সময় ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব আশরাফ সিদ্দিকী বিটু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 
 
বাংলাদেশ সময়: ১৫৫২ ঘণ্টা, জুন ০২, ২০১৯
এসকে/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আওয়ামী লীগ
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-02 15:54:37