ঢাকা, বুধবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ১৯ জুন ২০১৯
bangla news

‘নজরুলের গান-কবিতা নিয়ে জনগণের পাশে যাবে বিএনপি’

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৫ ১১:২৫:৩২ এএম
কবির সমাধিস্থলে শ্রদ্ধা নিবেদন করছে বিএনপিসহ বিভিন্ন সংগঠন। ছবি: বাংলানিউজ

কবির সমাধিস্থলে শ্রদ্ধা নিবেদন করছে বিএনপিসহ বিভিন্ন সংগঠন। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপট বিবেচনায় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের গান-কবিতা নিয়ে জনগণের পাশে যেতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম।

শনিবার (২৫ মে) সকালে কবি নজরুল ইসলামের ১২০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ সংলগ্ন কবির সমাধিস্থলে শ্রদ্ধা জানাতে এসে তিনি এ মন্তব্য করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা খায়রুল কবির খোকনসহ দলের অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

আব্দুস সালাম বলেন, আজকে জাতীয় কবির জন্মদিনে বিএনপি, কারাবন্দি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে কবির প্রতি থেকে শ্রদ্ধা জানাতে আমরা এখানে এসেছি। আমাদের বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান জাতীয় কবিকে ভারত থেকে এখানে নিয়ে এসেছিলেন। পাশাপাশি কবির ইচ্ছা অনুযায়ী মসজিদের পাশেই তাকে সমাহিত করার ব্যবস্থা করেছেন। সেজন্য আজকের এই দিনে কবি নজরুল ইসলামের পাশাপাশি আমাদেরকে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কথাও মনে করতে হবে।

কাজী নজরুল ইসলামকে সর্বসময়ের কবি আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, সত্যিকার অর্থে দেশের এখন যে অবস্থা, তাতে যেমনিভাবে কাজী নজরুল ইসলাম ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের সময় ক্ষেপে উঠেছিলেন,  যেমনিভাবে ৭১ সালে ২৬শে মার্চ শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান ক্ষেপে উঠেছিলেন, আজকেও ঠিক তেমনিভাবে ক্ষেপে ওঠার একটা সময় এসেছে। সারাদেশ ও জাতি অপেক্ষা করছে। কারণ আজকে অত্যাচার-নিপীড়ন যে পর্যায়ে গেছে, প্রতিটা মুহূর্তেই আমাদের কাজী নজরুল ইসলামকে মনে হয়। কাজী নজরুল ইসলাম শুধুমাত্র দেশের কবি না, সারাবিশ্বের কবি।  যেখানেই নিপীড়ন-নির্যাতন হবে, সেখানেই সবাই কাজী নজরুল ইসলামকে খুঁজবে। আজকে আমারা মনে হয় অনেকটা বন্দি কারাগারে অবস্থান করছি। এই অবস্থায় আমাদের আবার কবির গান-কবিতা নিয়ে জনগণের পাশে যেতে হবে। আজকের দিনে এটাই হোক আমাদের কাম্য।

এদিকে কবির ১২০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তার সমাধিস্থলে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছে- বাংলা একাডেমি, জাতীয় কবিতা পরিষদ, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, গণগ্রন্থাগার অধিদফতর, জাসাস, বাসদ, বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি ও শিল্পকলা অ্যাকাডেমিসহ বিভিন্ন স্তরের সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন।

বাংলাদেশ সময়: ১১২৫ ঘণ্টা, মে ২৫, ২০১৯
এসকেবি/এসএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বিএনপি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-25 11:25:32