ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২৫ জুন ২০১৯
bangla news

জামায়াতের সঙ্গে ‘জনআকাঙ্ক্ষার’ সম্পর্ক নেই, দাবি মঞ্জুর

মহসিন হোসেন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-০৪ ৪:৩৭:৩০ পিএম
মজিবুর রহমান মঞ্জু

মজিবুর রহমান মঞ্জু

মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে সংগঠন হিসেবে জামায়াতের বিচারের উদ্যোগ নিয়ে আলোচনা চলছে। জামায়াতের ওই সময়কার ভূমিকা নিয়ে খোদ দলটির মধ্যেই মতানৈক্য-বিরোধ স্পষ্ট। এর জেরে সম্প্রতি বহিষ্কৃত হন জামায়াতের কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরার সদস্য ও দলটির ছাত্রসংগঠন ছাত্র শিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মজিবুর রহমান মঞ্জু। বহিষ্কৃত হওয়ার দিনকয়েক বাদে তিনি আরও কয়েকজনকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ‘জনআকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ স্লোগানের একটি মঞ্চের আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ ঘটান। এটি তাদের রাজনৈতিক দল গঠনের প্রাথমিক পদক্ষেপ বলে জানান মঞ্জু। সেখানে মঞ্জু বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধকালীন ভূমিকার দায় স্বীকারের আহ্বান জামায়াত নেতৃত্ব অগ্রাহ্য করেছে। এই রাজনৈতিক অবস্থানের বোঝা একাত্তর পরবর্তী প্রজন্মের বহন করা উচিৎ নয় বলে আমরা বিশ্বাস করি।’

সাম্প্রদায়িক রাজনীতির জন্য অভিযুক্ত জামায়াত-শিবিরের সঙ্গে দীর্ঘ পথচলার পর মঞ্জুরা নতুন রাজনৈতিক প্লাটফর্ম গড়ায় বলা হচ্ছে, জামায়াতের খোলস পাল্টে নতুন করে রাজনীতি করার অপচেষ্টা এটি। এক্ষেত্রে ‘জনআকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’র অবস্থান কী- ব্যাপারটিসহ নানা বিষয়ে সম্প্রতি বাংলানিউজের সঙ্গে কথা বলেছেন মজিবুর রহমান মঞ্জু।

বাংলানিউজ: নতুন প্লাটফর্ম গড়ার হেতু?
মঞ্জু: বিরোধীদলের আন্দোলন ব্যর্থ হওয়ার কারণে মানুষ মনে করেছে তারা ক্ষমতার জন্য আন্দোলন করছে। আমি মনে করি সাধারণ মানুষের প্রয়োজন আর স্বার্থ নিয়ে যদি রাজনীতি করা যায়, তাহলে প্রতিকূলতার মধ্যে দিয়েও রাজনীতির আন্দোলনকে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব। এটাই আমাদের অনুপ্রেরণা ও উৎসাহ দিয়েছে।

বাংলানিউজ: বিএনপি বা আপনার পুরনো দল জামায়াতের আন্দোলন সঠিক পথে ছিল না?
মঞ্জু: বিরোধীদলের প্রতি জনসমর্থন আছে। যার কারণে সরকার আস্থা হারিয়ে মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। তবে আন্দোলনের পরিকল্পনায় বিরোধীদল ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।

বাংলানিউজ: আপনারা কি মাঠে নামতে পারবেন?
মঞ্জু: বর্তমানে দেশকে বিরাজনীতিকীকরণ করা হয়েছে। এর বিপরীতে মানুষের ব্যাপক আকাঙ্ক্ষাও আছে। ছোট-খাট ব্যাপারেও মানুষ প্রতিবাদ-প্রতিরোধ করে। আমরা যদি জনগণের মধ্যে ঐকমত্য তৈরি করে কর্মসূচি দিতে পারি তাহলে এই আন্দোলন এগিয়ে নেওয়া সম্ভব।

বাংলানিউজ: মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদাতা দল ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক (মাহবুব-উল-আলম হানিফ) বলেছেন, জামায়াতের খোলস পাল্টে নতুন করে কেউ বাংলাদেশে রাজনীতি করতে পারবে না…
মঞ্জু: এটা সম্পূর্ণ নতুন উদ্যোগ, জামায়াতের সঙ্গে সম্পর্ক নেই। হানিফ সাহেব যেভাবে মিন করেছেন (বুঝিয়েছেন) জামায়াতের খোলস বদল করা, এটা আমাদের জন্য প্রযোজ্য নয়। আওয়ামী লীগতো এই জামায়াতের সঙ্গেই একসময় রাজনীতি করেছে। তিনি যা বলেছেন সেটা সুবিধাবাদী রাজনীতির কথা বলেছেন।

বাংলানিউজ: জামায়াতের নেতারা আপনাকে থামাতে মাঠে নেমেছেন বলে শোনা যাচ্ছে।
মঞ্জু: এটা আসলে স্বাভাবিক ব্যাপার। আমি যেহেতু আগে একটা দল করেছি, সেহেতু তাদের মধ্যে একটা ধারণা বা শঙ্কা থাকতেই পারে। তারা যেটা করছেন এটাকে স্বাভাবিকভাবেই নিতে চাই।

বাংলানিউজ: জামায়াত থেকে কেন বহিষ্কার করা হলো আপনাকে?
মঞ্জু: জামায়াত আমার সদস্য পদ (রোকন) বাতিল করে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি। বাতিলের বিষয়টি সারাদেশে সার্কুলার দিয়ে জানিয়ে দেয়। আমি বিভিন্ন বিষয়ে ভিন্নমত পোষণ করায় এবং সংস্কারের দাবি তোলায় আমাকে বহিষ্কার করা হয়।

বাংলানিউজ: জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাক যেদিন পদত্যাগ করলেন, তার পরের দিনই আপনাকে বহিষ্কার করা হলো, ব্যাপার দু’টির মধ্যে কি কোনো যোগসূত্র আছে?
মঞ্জু: হ্যাঁ, রাজ্জাক সাহেব ১৪ ফেব্রুয়ারি পদত্যাগ করেন, পরের দিনই আমাকে বহিষ্কার করা হয়। এর মধ্যে যোগসূত্র আছে কি-না, জানি না।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৬ ঘণ্টা, মে ০৪, ২০১৯
এমএইচ/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-04 16:37:30