ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২১ মে ২০১৯
bangla news

লালমনিরহাট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি বহিষ্কার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-২১ ১১:২৯:৫২ এএম
বাম থেকে বহিষ্কার হওয়া একেএম হুমায়ুন কবীর ও বহিষ্কারাদেশের চিঠির কপি। ছবি: বাংলানিউজ

বাম থেকে বহিষ্কার হওয়া একেএম হুমায়ুন কবীর ও বহিষ্কারাদেশের চিঠির কপি। ছবি: বাংলানিউজ

লালমনিরহাট: দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সংগঠনবিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে লালমনিরহাট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের  সহ-সভাপতি একেএম হুমায়ুন কবীরকে (৪০) সাময়িকভাবে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শনিবার (২০ এপ্রিল) দিনগত রাতে জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নিয়ে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কার্যনির্বাহী কমিটি চিঠি পাঠায়।

সাময়িক বহিষ্কারপ্রাপ্ত একেএম হুমায়ুন কবির আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের সরলখাঁ গ্রামের মোস্তাব হোসেনের ছেলে। তিনি শনিবার প্রকৌশলীকে মারধরের মামলায় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্পাদক অ্যাডভোকেট সরিফুল ইসলাম রাজু স্বাক্ষরিত বহিষ্কারাদেশের চিঠিতে বলা হয়, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি একেএম হুমায়ুন কবির দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে সংগঠনবিরোধী কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়েন। তাই পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত সংগঠনের গঠনতন্তের ৩৪(ঞ) ধারা মতে সব পদ পদবি থেকে তাকে অব্যহতি দেওয়া হলো।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জেলা পরিষদ সদস্য সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে জরুরি বৈঠকের মাধ্যমে সহ সভাপতি পদ হতে একেএম হুমায়ুন কবিরকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে। এ সংক্রান্ত একটি চিঠি তার ঠিকানায় পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) সকালে নির্মাণাধীন সড়কের কাজ তদারকিতে যাওয়া আদিতমারী উপজেলার উপ সহকারী প্রকৌশলী জাকিরুল ইসলাম ও কার্যসহকারী আশরাফুল ইসলামের ওপর দলবল নিয়ে হামলা চালান একেএম হুমায়ুন কবির। এ ঘটনায় আহত প্রকৌশলীর দায়ের করা হামলা ও চাঁদাবাজি মামলায় শনিবার (২০ এপ্রিল) সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের খবরে জরুরি বৈঠকের মাধ্যমে কবিরকে বহিষ্কার করে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ।

বাংলাদেশ সময়: ১১২৫ ঘন্টা, এপ্রিল ২১, ২০১৯
আরএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজনীতি লালমনিরহাট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-21 11:29:52