ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

বিএনপি

নেতাকর্মীদের হতাশ না হওয়ার আহ্বান মির্জা ফখরুলের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৯ ০৫:১৯:৪১ পিএম
নেতাকর্মীদের হতাশ না হওয়ার আহ্বান মির্জা ফখরুলের ‘খালেদা জিয়া তৃতীয় বিশ্বের কণ্ঠস্বর’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান

ঢাকা: দলীয় নেতাকর্মীদের হতাশ না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আপনারা হতাশ হবেন না। বিএনপি নিঃশেষ হয়ে যায়নি।  বিএনপি সবসময় জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে।  বিএনপি খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আবারও ঘুরে দাঁড়াবে।

শুক্রবার ( ১৯ এপ্রিল) দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে ‘খালেদা জিয়া তৃতীয় বিশ্বের কণ্ঠস্বর’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি এবং খালেদা জিয়া এদেশের মানুষের জন্য রাজনীতি করে।

সেজন্য সরকার চাইলেও বিএনপিকে শেষ করতে পারবে না।  

দলের নেতাকর্মীদের হতাশার কথা না বলার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আপনারা কখনও হতাশ হবেন না, হতাশার কথা বলবেনও না। কারণ, আমরা বিশ্বাস করি আমাদের নেত্রী জেলে থাকুন আর বাইরে থাকুন, তিনি আমাদের অনুপ্রেরণা, তিনিই নেতৃত্ব দিয়ে এদেশের গণতন্ত্রকে মুক্ত করবেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়াকে আমরা নববর্ষের দিন দেখতে গিয়েছিলাম।  তিনি এতটাই অসুস্থ যে, বিছানা থেকে উঠতে সাহায্য নিতে হয়। তারপরও তিনি এতটুকু মনোবল হারাননি। সে মনোবল নিয়েই আমাদের মাতাকে মুক্ত করতে হবে এবং গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হবে।

‘খালেদা জিয়া তৃতীয় বিশ্বের কণ্ঠস্বর’, ৮৬০ পৃষ্ঠার বইটি লিখেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ ও কবি আব্দুল হাই সিকদার।

ড. এমাজউদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে ‘খালেদা জিয়া তৃতীয় বিশ্বের কণ্ঠস্বর’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন,  ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আবদুল মঈন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়,  নজরুল ইসলাম খান, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, কবি আব্দুল হাই সিকদার, ঢাবির সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ারউল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির যুগ্মমহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন প্রমুখ।

বইটিতে খালেদা জিয়ার ১০ বছরের শাসনামলে শিক্ষার প্রসার, ভিশন-২০৩০, ১/১১ সরকারের সময়ে বিভিন্ন বক্তব্য, বিভিন্ন দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে তার সাক্ষাতের ছবি তুলে ধরা হয়েছে।  

বইটিতে ১২ জন লেখকের লেখা রয়েছে এবং বিষয় সূচি হয়েছে ১২টি। লেখকরা হলেন- ড. এমাজউদ্দীন আহমদ, ড. মুস্তাফিজুর রহমান, ড. হাসান মোহাম্মদ, ড. আবদুল লতিফ মাসুম, সিনিয়র সাংবাদিক শওকত মাহমুদ, আবদুল হাই শিকদার, ড. দিল রওশন জিন্নাত আরা নাজনীন, ড. মাহফুজ পারভেজ, সৈয়দ আবদাল আহমদ, ড. ফজলুল হক সৈকত, কাজী মোহাম্মদ মাহাবুবুর রহমান এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাবেক সভাপতি ও রয়টার্সের সাংবাদিক লন্ডনপ্রবাসী এম মাহাবুবুর রহমান।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিএনপির সহ-প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান ও ঐক্যফ্রন্টের দফতর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৯, ২০১৯
এমএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa