ঢাকা, শনিবার, ৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ আগস্ট ২০১৯
bangla news

‘খালেদার চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতিই বিএনপির লক্ষ্য’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-০৮ ৭:৩৪:৪২ পিএম
আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উপ কমিটি আয়োজিত সেমিনার

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উপ কমিটি আয়োজিত সেমিনার

ঢাকা: খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি নয়, তার চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি করা বিএনপির মূল লক্ষ্য বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ। প্যারোলে মুক্তির জন্য যদি আবেদন করা হয় তাহলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে পদক্ষেপ নেবে বলেও জানান তিনি।

সোমবার (০৮ এপ্রিল) বিকেলে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উপ কমিটি আয়োজিত ‘ভবনের কর্মদক্ষতা ভিত্তিক অগ্নি সুরক্ষা: বর্তমান প্রেক্ষিত’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মাহবুব-উল-আলম হানিফ।

মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হলো, কারাগারে খালেদা জিয়ার কোনো সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না, সুচিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না। যেহেতু খালেদা জিয়া সাবেক প্রধানমন্ত্রী তাই তিনি একজন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হওয়া সত্ত্বেও সরকারের পক্ষ থেকে কারা কর্তৃপক্ষকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে চিকিৎসার নির্দেশ দেওয়া হয়। বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে এনে তার চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আসলে খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি বা সুস্থতা নয়, খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি করাই বিএনপির মূল লক্ষ্য। খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি নিয়ে কথা উঠেছে। যদিও খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে কোনো আবেদন করা হয়নি। আবেদন করা হলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হবে, যেটা গতকাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন।

হানিফ বলেন, কারাগারে খালেদা জিয়া যে সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন একজন সাজাপ্রাপ্ত আসামি হিসেবে, বিশ্বের কোথাও কেউ এত সুবিধা পায় না। একজন সাজাপ্রাপ্ত আসামির চিকিৎসা হয় জেল কোড অনুযায়ী। কিন্তু খালেদা জিয়াকে আইন বহির্ভূতভাবে সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। একজ নিরাপরাধ ব্যক্তিকে খালেদা জিয়ার সঙ্গে জেলে থাকতে হচ্ছে, সেটারও অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এরপরও বিএনপি রাজনীতি করছে। খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হলে আইনি প্রক্রিয়ায়ই মুক্ত করতে হবে। এর বাইরে অন্য কোনো উপায় নেই। আন্দোলনের হুমকি দিয়ে লাভ হবে না। আইনি প্রক্রিয়ার বাইরে অন্য কোনো পথ খুঁজে লাভ হবে না।

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আরো বলেন, দেশে অর্থনৈতিক উন্নতির কারণে সুউচ্চ ভবন নির্মাণ হচ্ছে। তবে বিল্ডিং কোড না মানায় ভবনে ঝুঁকি বাড়ছে। ভবন নির্মাণের সময়ই নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। তারপরও অগ্নি দুর্ঘটনা ঘটলে তা দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আনা এবং প্রাণহানি যাতে না হয় সেই ব্যবস্থা নিতে হবে।
 
সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উপ কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হোসেন মনসুর। সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আবদুস সবুর, রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল হুদা প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৮, ২০১৯ 
এসকে/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-08 19:34:42