ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

বিএনপি

‘রাতে ভোটের কথা কমিশনের কর্তাই স্বীকার করেছেন’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-০৭ ০৬:৩৬:৫৫ পিএম
‘রাতে ভোটের কথা কমিশনের কর্তাই স্বীকার করেছেন’ বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

ঢাকা: ‘আমরা পরিষ্কার ভাষায় বলতে চাই কোনো নির্বাচনে পূর্ব রাতে ভোট বাক্সে ব্যালট ভরে দেওয়া আর বরদাস্ত করা হবে না।’ নির্বাচন কমিশনার ব্রি. জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরীর এমন বক্তব্যের কথা উল্লেখ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, এই বক্তব্যের মানে হলো এখন নির্বাচন কমিশনের একজন ঊর্ধ্বতন ব্যক্তিই বললেন- একাদশ সংসদ নির্বাচনের পূর্ব রাতে ভোট বাক্সে ব্যালট ভরে দেওয়া হয়েছিলো।

বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলে, সংসদ নির্বাচনের দুই মাস ছয় দিন পর এই স্বীকারোক্তির জন্য নির্বাচন কমিশনার ব্রি. জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরীকে আমরা ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

 কমপক্ষে বিবেকের তাড়নায় তিনি এই মহাসত্যটি স্বীকার করেছেন। এদিকে গতকাল মহাজোটের শরিক একজন শীর্ষ নেতা বলেছেন-এবার রাতের বেলা নয়, দিনের বেলাতেই ভোট ডাকাতি হবে। এমনকি বিনা ভোটের নির্বাচনের হিড়িক শুরু হয়ে গেছে। ” এখন নির্বাচন কমিশনের পাশাপাশি সরকারের শরিকরাও পর্যায়ক্রমে আগের রাতে ভোট ডাকাতির কথা অকপটে স্বীকার করছেন। কারণ জনগণের সামনেই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মহাভোট ডাকাতির রাজধর্ম পালন করেছে। তাহলে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের সময় তাদের মগজে কি কারফিউ জারি করা ছিলো?

নির্বাচন কমিশনকে অবিলম্বে নির্বাচনের ফল বাতিলের আহ্বান জানিয়ে রিজভী বলেন, কমিশনকে বলবো—ইতিহাসের জঘন্য অপকীর্তি ঢাকতে অবিলম্বে নির্বাচনের ফল বাতিলের কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করুন এবং নতুন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা দিন। আর সময়ক্ষেপণ করবেন না।

খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে সরকার ছিনিমিনি খেলছে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, বর্তমান ম্যান্ডেটবিহীন মিডনাইট ইলেকশনের সরকার খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা না দিয়ে তার জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে। সুচিকিৎসার অভাবে তার অসুস্থতা ভয়ংকর পর্যায়ে উপনীত হলেও তাকে ফেলে রাখা হয়েছে গুমোট স্যাঁতসেঁতে পরিত্যক্ত কারাগারে।

প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহবান জানিয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, আপনার মনের মতো নির্বাচন তো শেষ। এবার দেশনেত্রীকে মুক্তি দেন। তার বয়স এবং গুরুতর অসুস্থতার কথা বিবেচনা করে তাকে কারামুক্ত করুন। কারণ বন্দিশালার চাবি আপনার হাতেই। তাকে সুচিকৎসার জন্য বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তির সুযোগ দিন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা নজমুল হক নান্নু, সাহিদা রফিক, প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশারফ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩১ ঘণ্টা, মার্চ ০৭, ২০১৯
এমএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa