ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৬ আগস্ট ২০২০, ১৫ জিলহজ ১৪৪১

আওয়ামী লীগ

পিলখানা বিদ্রোহের দিন খালেদা কোথায় লুকিয়ে ছিলেন?

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪০ ঘণ্টা, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
পিলখানা বিদ্রোহের দিন খালেদা কোথায় লুকিয়ে ছিলেন? ফেনী সার্কিট হাউজে মত বিনিময় সভায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীসহ অন্যরা

ফেনী: পিলখানায় বিডিআর বিদ্রোহের দিন খালেদা জিয়া কোথায় লুকিয়ে ছিলেন-এমন প্রশ্ন রেখে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সে রহস্য উদঘাটিত হলে এ হত্যাকাণ্ডের কারণও উদঘাটিত হবে। কেন তাকে (খালেদা জিয়া) লুকিয়ে থাকতে হলো?

ফেনী সার্কিট হাউজে মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মত বিনিময়কালে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ইঙ্গিত করে কাদের বলেন, তিনি (মির্জা ফখরুল) সেদিন খালেদা জিয়াকে কোথায় লুকিয়ে রেখেছিলেন? তিনি যে রহস্য উন্মোচন করতে চাইছেন এর সঙ্গে এ হত্যাকাণ্ডের কোনো যোগসূত্র রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে হবে।

 

আসন্ন উপজেলা নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এখনো কেন্দ্রীয় মনোনয়ন ঘোষণা চূড়ান্ত হয়নি। তিনটি জরিপ রিপোর্টের সঙ্গে তৃণমূলের পাঠানো তালিকা দেখে দলের ১৯ সদস্যের মনোনয়ন বোর্ড শুধু চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন ঘোষণা করা হবে।

কাদের বলেন, বিএনপির উপজেলা নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার নির্দেশ অমান্য করে তৃণমূলের নেতারা নমিনেশন জমা দিচ্ছেন। প্রথম ধাপে ৭ জন এবং ২য় ধাপে ৩৭ জন মনোনয়ন নিয়েছেন বলে তথ্য এসেছে।  

কূটনীতিকদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিএনপির অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি  বলেন, খালেদা জিয়া যতটা অসুস্থ নন, সে তুলনায় তার অসুস্থতা নিয়ে বেশি রাজনীতি করা হচ্ছে। নীতিনির্ধারণীতে বিএনপি দুর্বল ও নেতিবাচক রাজনীতির কারণে তারা ক্রমাগত জনসমর্থন হারাচ্ছে। তারা নির্বাচনেও ব্যর্থ, আন্দোলনেও ব্যর্থ।  

সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের উন্নয়নের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, চলতি বছরের মধ্যে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন দৃশ্যমান হবে। এরইমধ্যেই পদ্মাসেতুর ৬৩ শতাংশ কাজ শেষে হয়েছে। ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে, মেট্রোরেল স্ক্রু ফাইলিং উদ্বোধন হয়েছে, মিরসরাই থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত মেরিন ড্রাইভ হবে, ৮শ’ কিলোমিটার সীমান্ত সড়কের খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি ও বান্দরবানের ৩শ’ কিলোমিটারের কাজ চলছে। চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীতে টানেল নির্মাণের কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে। ফেনী-লক্ষ্মীপুর-কুমিল্লা-লাকসাম সড়কে চারলেনের কাজ শুরু হচ্ছে। কাঁচপুর দ্বিতীয় সেতু মার্চ মাসের ১০ তারিখে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন। জুন মাসে মেঘনা ও গোমতী দ্বিতীয় সেতু উদ্বোধন করা হবে। এগুলো উন্মুক্ত হলে দীর্ঘদিনের যানজটের অবসান হবে।  

এসময় মন্ত্রী ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনী অংশের লালপুলে বহু প্রত্যাশিত আন্ডারপাস নির্মাণের পরিকল্পনার কথা বলেন। এনিয়ে জরিপসহ প্রাথমিক কাজ শুরু হয়েছে বলেও জানান।  

সম্প্রতি একটি বিদেশি সংবাদ মাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাতকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজনীতি থেকে আগামীতে অবসর নেওয়ার যে ঘোষণা দিয়েছেন সে প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, এটি তার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। বাংলাদেশের জনগণের চাহিদার সঙ্গে তাকে সংগতি রাখতে হবে। তবে আমরা তাকে রাজনীতি থেকে অবসর নিতে দেবো না।

তথ্যপ্রযুক্তি আইন নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের ব্যাপারে মন্ত্রী বলেন, আইসিটি আইনের বিধি-প্রবিধি মার্জিত ও পরিশিলিত করা যায়। তবে বিগত সময়ে এর অপপ্রয়োগ লক্ষ্য করিনি। এর মাধ্যমে কেউ হয়রানি বা নির্যাতনের শিকার হবেন না।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী, ফেনী জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান, পুলিশ সুপার এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার, ফেনীর সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদ হোসেন, ফেনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৯
এসএইচডি/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa