ঢাকা, শুক্রবার, ৮ চৈত্র ১৪২৫, ২২ মার্চ ২০১৯
bangla news

মমতাজের মৃত্যুতে বগুড়ায় সাতদিনের শোক কর্মসূচি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-১৭ ৬:৫০:৩৯ পিএম
মমতাজ উদ্দিন। ফাইল ফটো

মমতাজ উদ্দিন। ফাইল ফটো

বগুড়া: প্রবীণ রাজনীতিবিদ, মুক্তিযোদ্ধা ও বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিনের মৃত্যুতে সাত দিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি।

রোববার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে শহরের সাতমাথা সংলগ্ন টেম্পল রোডের দলীয় কার্যালয়ের সামনে মমতাজ উদ্দিনের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদনের আগে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন বগুড়া সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সুফিয়ান শফিক।
 
কর্মসূচি অনুযায়ী, রোববার থেকে শুরু করে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন ও দলীয় নেতাকর্মীরা কালো ব্যাচ ধারণ করবেন।
 
কর্মসূচি ঘোষণাকালে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, যুগ্ম- সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, টি জামান নিকেতা ছাড়াও অসংখ্য নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
 
দলীয় কার্যালয়ের সামনে জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এর আগে মমতাজ উদ্দিনের মরদেহ নেওয়া হয় বগুড়া প্রেসক্লাব চত্বরে। 

সেখানে প্রেসক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়ন, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ও বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার ফেডারেশনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।
 
জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মমতাজ উদ্দিনের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় শহরের ঐতিহ্যবাহী আলতাফুন্নেছা নেছা খেলার মাঠে। সেখানে বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ উদ্দিনের প্রতি গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।
 
পরে সেখানে প্রথম জানাজা শেষে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় সদরের মানিকচক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে। সেখানে দ্বিতীয় জানাযা শেষে কদিমপাড়া গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হবে বলে জানান আওয়ামী লীগ নেতা টি জামান নিকেতা।
 
শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাত ৩টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।
 
তিনি দীর্ঘদিন ধরে মমতাজ উদ্দিন ডায়াবেটিস, হৃদরোগ ও কিডনি জটিলতাসহ বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। চোখের চিকিৎসার জন্য মমতাজ উদ্দিন গত ৪ ফেব্রুয়ারি ভারতে যান। সেখানে চিকিৎসা শেষে গত ১২ ফেব্রুয়ারি দেশে ফেরেন তিনি।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮৪২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৯
এমবিএইচ/এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14