ঢাকা, সোমবার, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১০ আগস্ট ২০২০, ১৯ জিলহজ ১৪৪১

রাজনীতি

মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদল, স্থায়ী সহাবস্থানের দাবি

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯
মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদল, স্থায়ী সহাবস্থানের দাবি মধুর ক্যান্টিনে নেতাদের কুশল বিনিময়/ছবি: বাদল

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রায় ১০ বছর পর মধুর ক্যান্টিনে এসেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। এসময় তারা ক্যাম্পাসে স্থায়ী সহাবস্থানের দাবি জানিয়েছে।

বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে ঢাবি শাখা ছাত্রদলের সভাপতি আল মেহেদী তালুকদার এবং সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার সিদ্দিকির নেতৃত্বে ছাত্রদলের নেতকর্মীরা মধুর ক্যান্টিনে অবস্থান নেয়। পরে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় কেন্দ্রীয় সভাপতি রাজীব আহসান ও সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান।


 
শুরুতেই ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন তারা। পরে ছাত্র ইউনিয়নসহ বাম সংগঠনগুলোর নেতাদের সঙ্গেও মতবিনিময় করেন। এসময় ছাত্রদল ও ছাত্রলীগকে মধুর ক্যান্টিন মুহুর্মুহু দলীয় স্লোগান দিতে দেখা যায়। পরবর্তীতে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি রাজীব আহসান।
 
মধুর ক্যান্টিনে নেতাদের কুশল বিনিময়/ছবি: বাদলআমরা ঢাবি প্রশাসনকে সাত দফা দাবি জানিয়েছি। প্রথমটি ছিল ক্যাম্পাসে এবং হলে সহাবস্থান নিশ্চিত করতে হবে। আমরা দশ বছর পর বিশ্ববিদ্যালয়ে এসেছি। প্রশাসন ও অন্যান্য ছাত্রসংগঠনের সঙ্গে নিয়মিত কার্যক্রম চালিয়ে যেতে চাই। তার পদক্ষেপ হিসেবে আমরা এখানে এসেছি। এ প্রক্রিয়াটা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি। আমরা দাবি জানিয়েছি ন্যূনতম তিনমাস সহাবস্থানের পরে ডাকসুর নির্বাচনের পরিবেশ নিশ্চিত হলেই ভোটগ্রহণ করার। ভোটকেন্দ্র হলের বাইরে নিয়ে আসার দাবিতে এখনো অটল আছি আমরা। সামগ্রিক পরিবেশ নিশ্চিত হওয়ার পর পুনরায় তফসিল ঘোষণা করতে হবে।
 
বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি তিনি বলেন, সহাবস্থানের স্থায়ী সমাধানের জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করার দাবি জানাচ্ছি। প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে যে সব অগণতান্ত্রিক ধারা আছে তা বাতিল করতে হবে।
 
অপরদিকে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে কথা বলেন সংগঠনটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। তিনি বলেন, ক্যাম্পাসে যে গণাতন্ত্রিক পরিবেশ আছে সেটা আজকে প্রমাণ হয়ে গেছে। যার যার রাজনীতি সে করবে। ছাত্রলীগ কাউকে বাঁধা দিবে না।
  
বাংলাদেশ সময়: ১৩১৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯
এসকেবি/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa