ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪২৬, ২১ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

শরিকরা বিরোধী দলে থাকলেই ভালো: ওবায়দুল কাদের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৭ ১২:০১:৪১ পিএম
সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের প্রস্তুতি দেখতে আসেন ওবায়দুল কাদের

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের প্রস্তুতি দেখতে আসেন ওবায়দুল কাদের

ঢাকা: আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মহাজোটের শরিকরা বিরোধী দলে থাকলে আমাদের জন্য ভালো, তাদের জন্যও ভালো, সরকারের জন্যও ভালো। আমার মনে হয় মহাজোটের শরিকদের বিরোধী দলে থাকাটাই ভালো হবে। কারণ, শক্তিশালী বিরোধী দল থাকলে সংসদে কনস্ট্রাক্টিভ আলোচনা হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় পাওয়ায় বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের সমাবেশের প্রস্তুতি পরিদর্শনে গিয়ে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। 

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহব-উল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথসহ দলের অন্যান্য নেতারা।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, মহাজোট হচ্ছে রাজনৈতিক কৌশলগত জোট আর ১৪ দলের সঙ্গে আমাদের আদর্শিক জোট। তবে মহাজোট বা ১৪ দলের শরিকদের সঙ্গে আমাদের কোনোরকম টানাপোড়েন নাই।  আমাদের মধ্যে কোনো ব্যাপারে যদি ভুলবোঝাবুঝি থাকে সেটা আমরা আলাপ আলোচনার মাধ্যমে নিরসন করব। এখানে কোনো প্রকার বিভেদ, ভাঙন বা টানাপোড়েন বলতে যা বুঝায় সেটা নেই।

তিনি বলেন, শরিকদের অনেকেই তো বিরোধী দলে থাকবেন বলেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমার মনে হয় বিরোধী দলে থাকলে তাদের জন্যও ভালো, আমাদের জন্যও ভালো। আমাদের ঐক্য তো রাজনৈতিক জোট, নির্বাচনী ঐক্য ভিন্ন জিনিস। নির্বাচনী জোট আর রাজনৈতিক জোট এক না। সংসদে তারা যদি বিরোধী দলের আসনে বসে দায়িত্বশীল বিরোধিতা যদি তারা করেন, সেটা সরকারের জন্যও ভালো, তাদের জন্যও ভালো। এগুলো আলাপ-আলোচনা করে সমাধান হবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, তাদের সঙ্গে রাজনৈতিক জোটের প্রশ্ন যখন আসে তখন তো আমরা একসঙ্গেই আছি। রাজনৈতিক জোট সেই জোট তো আমরা ভাঙিনি। এগুলো নিয়ে তাদের সঙ্গে আমাদের আলাপ-আলোচনা হচ্ছে, আরো আলাপ-আলোচনা হবে। সংসদে বিরোধী কণ্ঠ যতই শক্তিশালী হবে ততই সরকারি দলের ভুলত্রুটি ধরিয়ে দিতে পারবে। বিরোধিতা না থাকলে তো এক তরফা কাজ চলবে। বিরোধিতা থাকলে সরকারের জন্যও কিছু শিক্ষণীয় বিষয় থাকবে। সমালোচনা থেকে সরকার শুদ্ধ করতে পারবে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাম্প্রতিক বক্তব্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, বেপরোয়া চালক যেমন দুর্ঘটনার কারণ রাজনীতিতেও বেপরোয়া চালকের কারণে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আমার ভয় হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১১৫৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৭, ২০১৯/আপডেট: ১৩৩৬ ঘণ্টা
এসএম/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14