ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
bangla news

সংরক্ষিত আসনে এমপির জন্য মনোনয়ন নিলেন কবরী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৫ ১:৪৯:৩৪ পিএম
সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য মনোনয়নপত্র নিলেন অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী, ছবি: ডিএইচ বাদল

সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য মনোনয়নপত্র নিলেন অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী, ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য মনোনয়নপত্র নিলেন অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী। ২০০৮ সালে নারায়ণগঞ্জের একটি আসন থেকে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ছিলেন তিনি।  

মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন কবরী।
 
এর আগে সকাল ১০টায় মনোনয়ন ফরম বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। 

মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের পর সারাহ বেগম কবরী বাংলানিউজকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসে বলীয়ান হয়ে একবার জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। এবারও আমার বিশ্বাস যে তিনি আমাকে সুযোগ দেবেন। 

‘প্রধানমন্ত্রী আমাকে আরও বড় দায়িত্ব দিলেও আমি নিষ্ঠার সঙ্গে মানুষের কল্যাণে কাজ করবো। সাধারণ মানুষের জন্য আমাদের মতো সচেতন মানুষদের কাজ করতে হবে।’ 

এবার সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হয়ে সংসদে যাওয়ার সুযোগ হলে দেশের সাংস্কৃতিক খাতে কাজ করবেন জানান নারায়ণগঞ্জ -৪ আসনের সাবেক এই এমপি। 

কবরী বলেন, দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গন থেকে নির্বাচিত হওয়া প্রথম মানুষ আমি। তাই আবারও সুযোগ পেলে দেশের তথ্য ও সংস্কৃতি খাতে কাজ করার ইচ্ছা আছে। দেশীয় চলচ্চিত্র, নাটক, শিল্প - সাহিত্য, তথ্যখাতে এখনও অনেক উন্নয়ন দরকার। সুযোগ পেলে এ বিষয়ে কাজ করবো। 

তবে বাংলা চলচ্চিত্রের রূপালী অধ্যায়ের জনপ্রিয় এই নায়িকা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ও দল যে কাজে আমায় নিযুক্ত করবেন আমি তা পালন করবো। 

‘প্রধানমন্ত্রী অনেক ভালো বোঝেন। তিনি যেখানে দেবেন সেখানেই কাজ করবো। আমি মুক্তিযোদ্ধা। দেশের সার্থে কাজ করবো, দেশের মানুষের সঙ্গে কাজ করবো।’ 

জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসন ৫০টি। একাদশ জাতীয় সংসদের এই ৫০জন জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে তফসিল আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারি ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। 

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, তফসিল ঘোষণার আগে ইসি রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে চিঠি দিয়ে জানতে চাইবে, তারা একক, নাকি জোটগতভাবে নির্বাচন করবে। দলগুলোকে এ বিষয়ে নিজেদের সিদ্ধান্ত ৩০ জানুয়ারির মধ্যে জানাতে হবে। 

এরপর ইসি ১২ ফেব্রুয়ারি ভোটার তালিকা প্রণয়ন করা হবে। আর তফসিল ঘোষণা করা হবে ১৭ ফেব্রুয়ারি। তফসিলে মনোনয়নপত্র দাখিল, মনোনয়নপত্র বাছাই ও প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় জানানো হবে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০১৯
এসএইচএস/এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-01-15 13:49:34